১০খাতায় নিজে উত্তর লিখে জমা দিতে গিয়ে ধরা শিক্ষক, দুইবছরের দণ্ড

মঙ্গলবার, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৭:১৫ অপরাহ্ণ | 202 বার

১০খাতায় নিজে উত্তর লিখে জমা দিতে গিয়ে ধরা শিক্ষক, দুইবছরের দণ্ড

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে একটি কেন্দ্রে দাখিল পরীক্ষার্থীদের নৈর্ব্যক্তিকের উত্তরপত্র বদল করার অভিযোগে এক শিক্ষককে হাতেনাতে আটক করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

পরে আদালত ওই শিক্ষককে দুই বছর কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

মঙ্গলবার দুপুরে বাঞ্ছারামপুর উপজেলার সোবহানিয়া ইসলামিয়া ফাযিল ( ডিগ্রি) মাদ্রাসা এই ঘটনা ঘটে।

দণ্ডিত শিক্ষক হলেন, লক্ষীপুর জেলার সদর উপজেলার পূর্ব সৈয়দপুর গ্রামের সামসু উদ্দিন মিয়া ছেলে আবু নাছের(৩৬)।

এ ঘটনায় বাঞ্ছারামপুর সোবহানিয়া ইসলামিয়া ফাযিল ( ডিগ্রি) মাদ্রাসার অধ্যক্ষকে কেন্দ্র থেকে অব্যাহত দেওয়া হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর কেন্দ্র সচিবের পাশের রুমে দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি নৈর্ব্যক্তিকের উত্তরপত্র নিজে লেখে আগের গুলো সরিয়ে তার লেখা ১০টি নৈর্ব্যক্তিক উত্তরপত্র দিচ্ছিলেন। এসময় কেন্দ্র পরিদর্শনে যান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারি কমিশনার ( ভূমি) নাফিজা নাজ নীরা।
তিনি বিষয়টি বুঝতে পেরে জমা দেওয়া সময় হাতেনাতে ধরে ফেলেন কেন্দ্র পরিদর্শক কাজী সোহেলকে।

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) নাফিজা নাজ নীরা শিক্ষক কাজী সোহেলকে দুই বছরের কারাদণ্ড প্রদান করেন। পাশাপাশি১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নাসির উদ্দিন সরোয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

রাফি/-

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com