জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা

দিন

ঘন্টা

মিনিট

সেকেন্ড

হাসপাতালের ফটকে গানের কনসার্ট, দূর্ভোগে রোগিরা

বুধবার, ০১ জানুয়ারি ২০২০ | ১০:১৭ এএম | 95 বার

হাসপাতালের ফটকে গানের কনসার্ট, দূর্ভোগে রোগিরা

রোগীদের দুর্ভোগ সৃষ্টি করে ২৫০শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে কনসার্টের আয়োজন করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে বছরের শেষ দিন উদযাপন করতে হাসপাতালের ভেতরে ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট ও পিঠা উৎসবের আয়োজন করা হয়। এর আয়োজন করেন ঔষধ কোম্পানি হেলথকেয়ারের প্রোডাক্ট সারজেল।

এতে অংশ গ্রহণ করে হাসপাতালের চিকিৎসক ও তাদের পরিবারের সদস্যরা। এছাড়াও হাসপাতাল কম্পাউন্ডে আতশবাজি ফুটিয়ে উল্লাস করা হয়। এই আয়োজনে গান বাজনা করতে স্টেজ বানানো হয় বহিঃবিভাগের গেইটের সিঁড়িকে। এতে বিকট শব্দে চরম দূর্ভোগের শিকার হয় হাসপাতালে ভর্তি থাকা রোগিরা। এনিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠেছে। নতুন বছর আগমনকে কেন্দ্র করে যে কোন উন্মুক্ত স্থানে গান বাজনা ও আতশবাজি ফুটানোর উপর পুলিশ প্রশাসন থেকে নিষেধাজ্ঞা ছিল। সেই নিষেধাজ্ঞাও তারা মানেননি।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন শাহ আলম, বিএমএ নেতা ডাঃ আবু সাঈদ ও হাসপাতালের তত্বাবধায়ক শওকত হোসেন।

এবিষয়ে ২৫০শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের তত্বাবধায়ক শওকত হোসেন বলেন, চিকিৎসকরাও মানুষ। তাদেরও রিফ্রেশমেন্টের দরকার আছে। তাই অনুষ্ঠানে সবাই অংশ গ্রহণ করেছিল। কিন্তু আমি জানতাম না এই রকম করে গানের আয়োজন করা হয়েছিল।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন ডা. মো. শাহ আলম জানান, নতুন কয়েকজন চিকিৎসক হাসপাতালে যোগদান করেছেন। তাদের জন্য হেলথ কেয়ার নামে একটি প্রতিষ্ঠান ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট আয়োজন করছে। এর উদ্বোধন উপলক্ষে পিঠা উৎসব ও গানের আয়োজন করেছেন তারা। রোগীদের কথা মাথায় রেখে দ্রুত আয়োজন শেষ করা হয়েছে। নতুন বছরের কারণেই এমন হয়েছে। তবে চিকিৎসকরাও মানুষ। তাদের বিনোদনের কথা মাথায় রেখে এই অনুষ্ঠান করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com