সে মাদকের ব্যবসা করে এমনটিও শুনেছি-এমপি বুলবুল

বুধবার, ১৩ মে ২০২০ | ১:১৫ পূর্বাহ্ণ | 250 বার

সে মাদকের ব্যবসা করে এমনটিও শুনেছি-এমপি বুলবুল

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে ইয়াবাসহ এমএসকে মাহবুব নামের এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়। গত ৯মে ওই ব্যক্তিকে উপজেলা সদরের পূর্ব পাড়ার দারুল উলুম মাদ্রাসার পিছন গেট থেকে ইয়াবা বিক্রির সময় হাতেনাতে ধরে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। এর আগেও গত বছরের মার্চে ডিবি পুলিশ পরিচয় দেওয়া এমএসকে মাহবুবকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এই ব্যক্তিকে আটক করা নিয়ে চলছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলোচনা-সমালোচনা।


নবীনগর থানায় খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সানাউল করিম মাহবুব ওরফে এসকে মাহবুব (৪১) উপজেলার নবীনগর পূর্ব এলাকার বেপারী বাড়ির মৃত হুমায়ূন কবিরের ছেলে। গত ৯মে তাকে মাদকসহ আটকের আগেও এই মাহবুবের বিরুদ্ধে ২০১৭সালে নারী নির্যাতন আইনে ঢাকার কদমতলী থানায় একটি মামলা, ২০১৯সালে মাদক সেবনকালে হাতেনাতে আটক হয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতে দুই মাসের সাজা ও গত ২০১৯ সালের নবীনগর থানায় ২৭/১০৭ নম্বর মামলার এজহার নামীয় আসামী। তার বিরুদ্ধে মামলা গুলো চলমান আছে।

স্থানীয়রা জানান, মাহবুব ফেসবুকে বিভিন্ন সময়ে ফেসবুকে কুরুচিপূর্ণ স্ট্যাটাস দিতেন। এমনকি মাওলানা যুবায়ের আহমদ আনসারীর জানাযা নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলাকে নিয়ে কটুক্তি করে ফেসবুকে। এনিয়ে কথা বললে, তাদের হুমকি দামকি দিতেন।

এই বিষয়ে মুঠোফোনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ (নবীনগর) আসনের সাংসদ এবাদুল করিম বুলবুল কাছে মতামত জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, আমাদের জিকরুল ভাই যখন এমপি ছিলেন, তখন তার (মাহবুব) পরিবারের লোকজন আমার কাছে এসেছিল, সম্ভবত তার মা হবে, একটি তদবির নিয়ে। ওই সময় তার সম্পর্কে আমি প্রথম জানতে পারি, সে মাদকাসক্ত ছিল। এরপর অনেক দিন তার বিষয়ে জানা ছিল না। পরবর্তীতে ডাক বাংলোতে আমি আসলে সেখানে সে এসে অযথা কথা বলতেই থাকতো। মাদকাসক্ত লোকরা এমনিতেই কথা বেশি বলে, বিশেষ করে যারা ইয়াবা সেবন করেন।

তিনি আরও বলেন, বিভিন্ন সময় বিভিন্ন লোক আমার কাছে অভিযোগ করেছে, মাহবুব ফেসবুকে মানুষের সম্পর্কে আজে-বাজে কথা বলে তাদের সম্মানহানী করছে। নানান রকম কুরুচিপূর্ণ কথা ফেসবুকে লিখে হয়রানি সে প্রতিনিয়ত করে যাচ্ছিল। এছাড়াও সে মাদকের ব্যবসা করে এমনটিও শুনেছি কয়েকজনের কাছ থেকে।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com