সরোদের কসবা প্রতিনিধিকে কটুক্তি, প্রবাসীসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

বুধবার, ২৯ এপ্রিল ২০২০ | ৮:১৮ অপরাহ্ণ | 497 বার

সরোদের কসবা প্রতিনিধিকে কটুক্তি, প্রবাসীসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দেশে প্রকাশিত জনপ্রিয় দৈনিক সরোদে  কসবা উপজেলা প্রতিনিধিকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অশালীন ও কুরুচিপুর্ন ষ্ট্যাটাস ও মন্তব্য করায় ৪ জনকে আসামী করে কসবা থানায় মামলা করা হয়েছে।

বুধবার (২৯ এপ্রিল) দুপুরে কসবা প্রেসক্লাব দপ্তর সম্পাদক, দৈনিক সরোদ, বাংলা টিভি ও দৈনিক আমাদের সময় এর কসবা উপজেলা প্রতিনিধি রুবেল আহমেদ বাদী হয়ে এ মামলা করেন। এ ঘটনায় সাংবাদিকদের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।


অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, গত ২৩ এপ্রিল কসবা উপজেলার বিনাউটি ইউনিয়নের সৈয়দবাদ গ্রামের মৃত আলী আজমের বড় ছেলে শরীফুল ইসলাম রনি শ্বাসকষ্ট ও জ্বর (করোনা উপসর্গ) নিয়ে মারা যায়। তার মারা যাওয়ার বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অবহিত করেন কসবা প্রেসক্লাব দপ্তর সম্পাদক রুবেল আহমেদ। পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকগন রনিসহ তার পরিবারের সকল সদস্যদের নমুনা সংগ্রহ করেন।

পরে রাত সাড়ে ১০টার ওই গ্রামে যান উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট মো.রাশেদুল কাওসার ভূইয়া জীবন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ উল আলম ও কসবা থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ লোকমান হোসেন। তাঁরা সেখানে উপস্থিত হয়ে রাতেই রনির লাশ দাফনের নির্দেশনা দেন এবং গ্রামকে লক ডাউন করা হয়।

পরে রনিসহ তাদের রিপোর্ট নেভেটিভ আসে। রনি মৃত্যুর খবর উপজেলা প্রশাসনকে জানানোর কারণে ওই গ্রামের মো.ছোলমান ভূইয়ার ছেলে ইটালী প্রবাসী জুনায়েদ আদনান নাজিম তার ফেসবুক আইডি থেকে সাংবাদিকদের নিয়ে অশালিন ও কুরুচিপুর্ন একটি ষ্ট্যাটাস দেয়। তার এ ষ্ট্যাটাসের সাথে সহমত পোষন করে গ্রামের আরো কিছু বখাটে যুবকও সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য অশালিন মন্তব্য করে। তার প্রেক্ষিতে বুধবার সাংবাদিক রুবেল আহমেদ বাদী হয়ে ওই গ্রামের ৪ জনকে আসামী করে মামলাটি দায়ের করেন।।

বিষয়টি আইন,বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক এমপি, উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট মো. রাশেদুল কাওসার ভূইয়া জীবন ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ উল আলমকে অবহিত করা হয়েছে।

কসবা প্রেসক্লাব সভাপতি মো.সোলেমান খান সাংবাদিকদের নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অশালীন মন্তব্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণসহ পুলিশ প্রশাসনকে ২৪ ঘন্টার মধ্যে আসামীদের গ্রেপ্তারের দাবী জানান।

কসবা থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ লোকমান হোসেন সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। জরুরী ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com