জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা

দিন

ঘন্টা

মিনিট

সেকেন্ড

শেষ চেষ্টায়ও প্রার্থিতা থাকল না মুসলিম উদ্দিনের

সোমবার, ২৪ ডিসেম্বর ২০১৮ | ৩:০৮ পিএম | 365 বার

শেষ চেষ্টায়ও প্রার্থিতা থাকল না মুসলিম উদ্দিনের

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ (কসবা-অখাউড়া) আসনের বিএনপির প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার মুসলিম উদ্দিনের প্রার্থিতা বাতিল হওয়া হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার আদালতে আপিল আবেদন জানিয়েও প্রার্থিতা ফিরে পেলেন না তিনি।
এর ফলে মুসলিম উদ্দিন নির্বাচনে অংশগ্রহণ সম্ভব হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন আইনজীবী শাহ মঞ্জুরুল হক।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ (কসবা-আখাউড়া) আসনের আওয়ামীলীগ মনোনীত মহাজোট প্রার্থী আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক নির্বাচন করছেন। মুসলিম উদ্দিনের প্রার্থিতা বাতিল ঘোষণার ফলে আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক কে নির্বাচনে বিজয়ী ঘোষণা করা সময়ের ব্যাপার মাত্র বলছে স্থানীয় ভোটাররা। এখন আইন মন্ত্রীর সাথে নির্বাচনী মাঠে রয়েছেন শুধু ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী মো. জসিম।

হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে প্রার্থীদের করা আপিল আবেদনের শুনানি নিয়ে সোমবার (২৪ ডিসেম্বর) চেম্বার বিচারপতি নুরুজ্জামান ননীর আদালত এ আদেশ দেন।

নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী গত ৮ ডিসেম্বর মনোনয়ন যাচাই-বাছায়ের দিন উপজেলা চেয়ারম্যান থেকে পদত্যাগপত্র দেখাতে না পারায় বিএনপির প্রার্থী মুসলিম উদ্দিনের প্রার্থিতা বাতিল করেন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা। পরে নির্বাচন কমিশনে আপিল করে মুসলিম উদ্দিন প্রার্থিতা ফিরে পান।
এর আগে প্রতিদ্বন্দী প্রার্থীদের রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বিএনপির বেশ কয়েকজন প্রার্থীর প্রার্থিতা হাইকোর্টে আটকে যায়।
নির্বাচন কমিশনের (ইসি) পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট শাহ মঞ্জুরুল হক।অন্যদিকে, আদালতে আবেদনকারীদের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল

উপজেলা চেয়ারম্যান পদে থেকে নির্বাচন করায় হাইকোর্টে রিট করেন এই আসনের ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী মো. জসিম।

তার প্রার্থিতা স্থগিত করে রুল জারি করেছিলেন। যার পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৩ ডিসেম্বর হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগে পৃথক পৃথক আবেদন জানান মোসলেম উদ্দিন। ওই আবেদনের শুনানি নিয়ে চেম্বার আদালত তার প্রার্থিতা নিয়ে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রাখেন। এর ফলে মোসলেম উদ্দিনের আর নির্বাচনে অংশগ্রহণ সম্ভব হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন আইনজীবী শাহ মঞ্জুরুল হক।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com