আপডেট

x

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শিল্পী-সংস্কৃতিসেবীর ঈদ আনন্দ বাড়িয়ে দিলেন জেলা প্রশাসক (ভিডিও)

বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১ | ৮:১৯ অপরাহ্ণ | 101 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনা সংকটকালেও জেলার একশত শিল্পী-সংস্কৃতিসেবীর ঈদ আনন্দকে আরো বাড়িয়ে দিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খান। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ব্যবস্থাপনায় ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে প্রত্যেক শিল্পী-সংস্কৃতিসেবীর হাতে ৫ হাজার করে নগদ টাকা সকল জটিলতা এড়িয়ে অতিদ্রুততার সাথে তাদের তুলে দেয়ার ব্যবস্থা করলেন তিনি। বৃহস্পতিবার দুপুরে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শুভেচ্ছা উপহার হিসাবে এ টাকা তুলে দেয়া হয়। এ ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শিল্পী-সংস্কৃতিসেবীদের মধ্যে ব্যাপক উচ্ছাস বিরাজ করছে।


ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক এসআরএম উসমান গনি সজিবের সঞ্চালনায় শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে এসময় অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার, ,সুর সম্রাট দি আলাউদ্দিন সঙ্গীতাঙ্গনের সম্পাদক মনজুরুল আলম,বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক মো.মনির হোসেন,অনুশীলন সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের সভাপতি আবদুন নূর,জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সিনিয়র প্রশিক্ষক পীযুষ কান্তি আচার্য,জেলা শিল্পকলা একাডেমীর কার্যকরী সদস্য বাছির দুলাল।

webnewsdesign.com

জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খান বলেন,মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমৃদ্ধ সংস্কৃতির রাজধানী এই ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতি তান্ডবে সংস্কৃতির প্রধান প্রতিষ্ঠানগুলো ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। এ ঘটনায় শিল্পী-সংস্কৃতিসেবীদের অন্তর ক্ষত-বিক্ষত হয়েছে। ঈদ আনন্দকে সামনে রেখে সকল অপশক্তির বিরুদ্ধে শিল্পী-সংস্কৃতিসেবীদের জাগ্রত করতেই তাদের পাশে দাঁড়ানোর প্রয়াস। যারা বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালকে ক্ষত-বিক্ষত করে,সংস্কৃতির প্রতিষ্ঠানগুলিতে আগুন দেয় তারা বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করে না। তাদের বিরুদ্ধে সংস্কৃতির জাগরণ অত্যন্ত জরুরী।

জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক এসআরএম উসমান গনি সজিব বলেন,ঈদের আগের দিন শিল্পীদের কাছে শুভেচ্ছা উপহারটি ঈদ আনন্দকে বাড়িয়ে দিয়েছে বহুগুন। জেলা প্রশাসক মহোদয় অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথে কাজ করে শিল্পীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। আজ শিল্পীরাও তাদের আনন্দ প্রকাশ করেছে খুব।

প্রবীণ নাট্য ও যাদুশিল্পী যাদুকর সেলিম বলেন,করোনার কারণে বেকার হয়ে আছি। আজকের জেলা প্রশাসকের দেয়া শুভেচ্ছা উপহারকে অনেক সম্মানজনক মনে করছি। তিনি আমাদের শিল্পীদের জন্য এ উপহারের ব্যবস্থা করে যথার্থ অভিভাবকের ভূমিকা পালন করেছেন।


মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com