আপডেট

x

রায়ে জয়ের পর ঘোড়ার গাড়িতে আসলো নিপুণ, জায়েদকে যেতে হবে জাতিসংঘে

সোমবার, ২১ নভেম্বর ২০২২ | ৯:১৯ অপরাহ্ণ | 33 বার

রায়ে জয়ের পর ঘোড়ার গাড়িতে আসলো নিপুণ, জায়েদকে যেতে হবে জাতিসংঘে

অবশেষে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে জায়েদ খান ও নিপুণ আক্তারের দ্বন্দের অবসান হলো। জায়েদ খানের প্রার্থিতা বৈধ বলে ঘোষণা দেওয়া হাইকোর্টের রায় স্থগিত করেছে আপিল বিভাগ। সেই সঙ্গে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে নিপুণের লিভ টু আপিল গ্রহণ করেছেন আদালত। এর ফলে সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালনে নিপুণের আর কোন বাঁধা নেই।


সোমবার (২১ নভেম্বর) উচ্চ আদালতের এমন রায়ের ঘোষণার এমন খবরে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি উৎসবে মেতেছে। এফিডিসিতে সাধারণ সম্পাদক নিপুণকে বরণ করতে চলচ্চিত্র শিল্পীসহ অন্যান্য সদস্যরা ছুটে আসেন। ঢাক ঢোল বাজিয়ে ঘোড়ার গাড়িতে চড়িয়ে নিপুণকে ফুলের মালা গলায় দিয়ে বরণ করে নেন তারা।

webnewsdesign.com

তার আগে বিকালে সমিতির সামনে খোলা মাঠে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন সমিতির সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চন, সহ-সাধারণ সম্পাদক সাইমন সাদিক, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি সম্পাদক মামনুন ইমন, আরমান, জেসমিন, ডি এ তায়েব, প্রযোজক সমিতির নেতা খোরশেদ আলম খসরু, পরিচালক সমিতিরি সভাপতি সোহানুর রহমান সোহানসহ আরও অনেকে।

নিপুণের পক্ষে হাইকোর্টের রায়কে স্বাগত জানিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সমিতির সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, ‘এদেশে আর কোন রায় দেওয়ার সুযোগ নেই। তাকে যদি নতুন কোন রায় নিতে হয় তাহলে জাতিসংঘে যেতে হবে।’

এছাড়াও এই কিংবদন্তী অভিনেতা দু’পক্ষে মামলা বিষয়ে বলেন, ‘যখন জায়েদ খানের পক্ষে রায় আসছে তখন কিন্তু ঐ চেয়ারে সে বসেছে। আর যখন নিপুনের পক্ষে রায় এসেছে তখন নিপুণ বসেছে। এখন নিপুণ সাধারণ সম্পাদক পদে পূর্ণ রায় এসেছে। আমার তো কোন আপত্তি থাকার কথা নয়। আমরা তাদের রায়ের অপেক্ষায় বসে থাকিনি, কাজ করেছি।’

তিনি বলেন, আগে দেশে ১৫০টি সিনেমা হল ছিল। এখন সেটি ২০০ হলের বেশিতে দাঁড়িয়েছে। অনেক চলচ্চিত্র মুক্তি দিয়েছি। অনেক চলচ্চিত্র নতুন করে শুটিং শুরু হয়েছে। সামনে আর কোন দ্বিধাদ্বন্দ্ব নয়। বাকী কাজগুলো করার আশা প্রকাশ করেন।


এদিকে আজকের এ রায় চূড়ান্ত নয় বলে গণমাধ্যমে দাবি করেছেন জায়েদ খান। নিপুণের পক্ষে এই রায়ের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ কথা জানান।

চলতি বছরের ২৮ জানুয়ারি চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। পরদিন প্রাথমিক ফলাফলে জায়েদকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে জয়ী ঘোষণা করা হয়। পরে নির্বাচনী আপিল বোর্ডের কাছে এ নিয়ে লিখিত অভিযোগ করেন নিপুণ। ৭ ফেব্রুয়ারি জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করে নির্বাচনী আপিল বোর্ডের দেওয়া সিদ্ধান্ত স্থগিত করেন হাইকোর্ট। এ ছাড়া এ বিষয়ে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের চিঠির কার্যকারিতাও স্থগিত করা হয়। একই সঙ্গে প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত। চিত্রনায়ক জায়েদ খানের রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত এ রায় দেন। আপিল বোর্ড সমাজসেবা অধিদপ্তরে চিঠি পাঠায়। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ২ ফেব্রুয়ারি সমাজসেবা অধিদপ্তর এক চিঠিতে জানায়, আপিল বোর্ড এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।

গত ৫ ফেব্রুয়ারি আপিল বোর্ড জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করে নিপুণ আক্তারকে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করেন। তার জের ধরে মামলা পালটা মামলায় আজ নিপুণের লিভ টু আপিল গ্রহণ করেছেন আদালত।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com