মোটরসাইকেল আটক করায় পুলিশকে ধাক্কা-দূর্ব্যবহার, হাইওয়ে থানা ঘেরাও

শনিবার, ১৬ মে ২০২০ | ৬:৫০ অপরাহ্ণ | 564 বার

মোটরসাইকেল আটক করায় পুলিশকে ধাক্কা-দূর্ব্যবহার, হাইওয়ে থানা ঘেরাও

শনিবার দুপুরে মোটরসাইকেল আটকের জেরে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানা ঘেরাও করা হয়। এসময় পুলিশের সাথে উচ্চবাচ্য ও দূর্ব্যবহার করা হয়। এনিয়ে ওই এলাকায় উত্তেজনা দেখা দেয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে আশুগঞ্জে খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানা পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক(এএসআই) মতিউর রহমান একটি মোটরসাইকেল আটক করেন। এই মোটরসাইকেলটি সরাইল উপজেলার কুট্রাপাড়া এলাকার এক যুবকের। আশুগঞ্জে ডিউটি করে এএসআই মতিউর খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার সামনে চেকপোস্টে ডিউটি করছিলেন। এসময় মোটরসাইকেলের মালিক ওই যুবক স্থানীয় কয়েকজনকে সাথে নিয়ে এসে এএসআই মতিউরকে আটককৃত মোটরসাইকেলটি দিয়ে দিতে বলেন। মোটরসাইকেলটি দিতে অস্বীকৃতি জানালে তারা চলে যান। এর কিছুক্ষণ পর দুপুরে ওই যুবক লকডাউন উপেক্ষা করে অন্তত দুই শতাধিক বিভিন্ন বয়সী লোক সাথে নিয়ে উত্তেজিত হয়ে মহাসড়কের বিশ্বরোড মোড়ে খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানা ঘেরাও করে। এসময় উত্তেজিত লোকজন পুলিশকে উদ্দেশ্য করে গালমন্দ করে। কিছু উশৃংখল যুবক হাইওয়ে থানার একাধিক পুলিশ সদস্যকে ধাক্কা দিয়ে তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে। কিছুক্ষণ পর হাইওয়ে ওসি বেরিয়ে এসে উত্তেজিত লোকদের শান্ত করার চেষ্টা করলে উশৃঙ্খল যুবকরা তাঁর সঙ্গেও অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন। তবে ওই যুবকের নাম-পরিচয় না জানা গেলেও তার সাথে থাকার আরব আলী নামের এক ব্যক্তি এর নেতৃত্বে ছিলেন।


এই বিষয়ে খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম মনিরুজ্জামান চৌধুরী বলেন, একটি মোটরসাইকেল আটকের জেরে এই ঘটনা ঘটে। পুলিশের সাথে তর্কবিতর্ক হয়েছিল।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com