জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা

দিন

ঘন্টা

মিনিট

সেকেন্ড

মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে মুক্ত দিবস পালন করলো ‘আমরাই ব্রাহ্মণবাড়িয়া’

রবিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ১০:১২ পিএম | 91 বার

মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে মুক্ত দিবস পালন করলো ‘আমরাই ব্রাহ্মণবাড়িয়া’

ব্রাহ্মণবাড়িয়া মুক্ত দিবস ব্যাপক আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালন করলো ফেসবুক ভিত্তিক সংগঠন ‘আমরাই ব্রাহ্মণবাড়িয়া’। রোববার শহরের প্রাচীনতম বিদ্যাপীঠ ব্রাহ্মণবাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এই অনুষ্ঠান শুরু হয়। সকাল ৮টা ৮মিনিটে অনুষ্ঠানটি শুরু হয় দেওয়াল লিখনের ফলক উন্মোচন করে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ৫জন বীর মুক্তিযোদ্ধা। উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধারা হলেন, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার, বীর মুক্তিযোদ্ধা সায়েরা বেগম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম ভূঁইয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা ওয়াসেল সিদ্দিকী ও বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল খাঁ।
এসময় মুক্তিযোদ্ধারা মুক্তিযুদ্ধের সময়কার স্মৃতি চারণ করেন। প্রথমে স্মৃতিচারণ করেন মুক্তিযোদ্ধা কামাল খাঁ। এরপর বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার, সায়েরা বেগম সহ বাকীরা।

তার মধ্যে নারী মুক্তিযোদ্ধা সায়েরা বেগমের বক্তব্যের জন্য সবাই ছিল অধীর আগ্রহে।

তিনি তার বক্তব্যে জানান, ‘ সায়েরা বেগম জেলার বিজয়নগর উপজেলার মুকুন্দপুরের বাসিন্দা। মুক্তিযুদ্ধের সময়ে তিনি নানাভাবে সহায়তা করেছেন। তখন তিনি ১৭-১৮ বছরের তরুণী ছিলেন। তাঁর বাবা আবদুল আজিজ ছিলেন একজন রাজাকার। সেই সুবাদে বাড়িতে রাজাকারদের আনাগোনা ছিল। তাদের গতিবিধি খেয়াল রাখতেন সায়েরা বেগম। বাবার কাছ থেকে জেনে নিতেন পাকিস্তানি সেনাবাহিনী ও রাজাকারদের খবরাখবর। কবে কোথায় তারা অপারেশন চলাবে, কোন রাস্তা দিয়ে যাবে। রাতে বাড়ির পাশের পেয়ারা বাগানে মুক্তিযোদ্ধারা এলে তাঁদের কাছে সেই খবর জানিয়ে দিতেন। এভাবে তিনি মুক্তিযুদ্ধের পুরো সময়টা কাজ করেছেন।’
ব্রাহ্মণবাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি জহিরুল ইসলাম ভূইয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন, সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর এএসএম শফিকুল্লাহ, প্রমুখ।স্বাগত বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোস্তফা কামাল।

চমৎকার উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানটি প্রানবন্ত করে তুলেন ‘আমরাই ব্রাহ্মণবাড়িয়া’ ফেসবুক গ্রুপ #wishforbetterbrahmanbaria এর প্রতিষ্ঠাতা বিবর্ধন রায় ইমন।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com