আপডেট

x

নিয়মের বাইরে গিয়ে

মিটার রিডারের আনুমানিক বিদ্যুৎ বিল, মসজিদ থেকে প্রতিমাসে দিচ্ছে অতিরিক্ত টাকা

রবিবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২১ | ৮:৩৩ অপরাহ্ণ | 289 বার

মিটার রিডারের আনুমানিক বিদ্যুৎ বিল, মসজিদ থেকে প্রতিমাসে দিচ্ছে অতিরিক্ত টাকা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মিটার রিডারের খাম-খেয়ালিতে দূর্ভোগের শিকার হচ্ছে গ্রাহকেরা। এবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিদ্যুৎ বিতরণ বিভাগের শাহ জামাল নামের এক মিটার রিডারের অবহেলায় এক মসজিদ কমিটিকে দিতে হয়েছে গচ্ছা। মিটার না দেখে জেলা শহরের দক্ষিণ পৈরতলা বাসস্ট্যান্ডে মসজিদুল কোবায় গত তিন মাসে প্রায় ২২ হাজার টাকা অতিরিক্ত বিল দিয়েছে মিটার রিডার শাহ জামাল। এর কারণ জিজ্ঞাস করলে মিটার রিডার শাহ জামাল কমিটির সদস্যদের বিল মনগড়া মতো দেওয়ার কথা স্বীকার করে। বিদ্যুৎ বিভাগের সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছে, মিটার না দেখে আনুমানিক বিল প্রদান করার কোন সুযোগ নেই।


এই বিষয়ে মসজিদুল কোবার সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম কাউসার এমরান বলেন, মসজিদুল কোবায় গত তিন মাসে কোন প্রকার মিটার না দেখে বৈদ্যুতিক বিল প্রদান করেছে এই এলাকার মিটার রিডার শাহ জামাল। তার খামখেয়ালীতে মসজিদ কমিটিকে ২২ হাজার টাকা অতিরিক্ত বিল প্রদান করতে হয়েছে। রোববার বিকেলে বিষয়টি ধরা পড়লে শাহ জামালকে খবর দেওয়া হয়। তিনি এসে অতিরিক্ত বিলের কথা স্বীকার করেন।

webnewsdesign.com

তিনি আরও বলেন, এলাকাবাসীর ও বিভিন্ন মানুষের সহায়তায় এই মসজিদটির অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে। মহাসড়ক প্রস্বস্ত করায় এই মসজিদটি অধিগ্রহণের আওতায় পড়ায় ভাঙা পড়তে যাচ্ছে। এমনিতেই মসজিদটি স্থানান্তরিত করা নিয়ে আমরা চিন্তিত। তার উপর অতিরিক্ত বিল নিয়ে আমরা আছি বেকায়দায়।

এই বিষয়ে মিটার রিডার শাহ জামালের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি অতিরিক্ত বিলের কথা স্বীকার করেন। তিনি বলেন, একদিনে এত বিল জমা হয়নি। মিটার না দেখে আনুমানিক বিল করায় ধাপে ধাপে বিলগুলো জমা হয়েছে।

মিটার রিডার শাহ জামাল এক পর্যায়ে নিয়ম কানুনকে তোয়াক্কা না করে সংবাদ প্রকাশ করতেও বলেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিদ্যুৎ বিতরণ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল হান্নান জানান, মিটার না দেখে বিদ্যুৎ বিল প্রদান করার কোন নিয়ম নেই। এই বিষয়ে খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।


 

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com