আপডেট

x

ভুটানে উৎপাদিত সকল পণ্য আমদানি হবে আখাউড়া দিয়ে

বুধবার, ০৪ জানুয়ারি ২০২৩ | ৯:৩২ অপরাহ্ণ | 31 বার

ভুটানে উৎপাদিত সকল পণ্য আমদানি হবে আখাউড়া দিয়ে
ফাইল ছবি

এখন থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে আলু ও সুতা ব্যতিত ভারত হয়ে ভুটানের সকল পণ্য আমদানি করা যাবে। বুধবার (০৪ জানুয়ারি) অনুমতি দিয়ে আমদানিযোগ্য পণ্যের নতুন তালিকা প্রকাশ করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড। পাশাপাশি সেই তালিকা সরকারি গেজেট আকারে প্রকাশ করা হয়েছে।


এরমধ্যে, গবাদিপশু, মাছের পোনা, তাজা ফলমূল, গাছগাছড়া, বীজ, চাল, গম, পাথর (stones and boulders), কমলা, রাসায়নিক সার, চায়না ক্লে, কাঠ, টিম্বার, চুনাপাথর, পেঁয়াজ, মরিচ, রসুন, আদা, বলকে, কোয়ার্টজ, শুঁটকি মাছ, সাতকরা, আগরবাতি, জিরা, রাবার (raw), মেইজ, stones boulder, সয়াবিন বীজ, Bamboo Products, Arjun Flower (Broom), পান, CNG spare parts, কাজু বাদাম, কাগজ, চিনি, জেনারেটর, ভাঙ্গা কাঁচ, চকোলেট, বেবি ওয়াইপার, কনফেকশনারি দ্রব্যাদি, বিটুমিন, পান, টমেটো, মেথি (Fenugreek seeds), শুকনা তেঁতুল, শুকনা কূল, ফ্লাই অ্যাশ, সকল প্রকার খৈল, ফায়ার ক্লে, ধান ক্লে, মার্বেল চিপস, তিল, সরিষা, সুপারি, ক্র্যাপ অ্যান্ড ওয়েস্ট (আয়রন / স্টিল) ও গ্রানাইট স্ল্যাব সহ আরও কিছু পণ্য রয়েছে।

webnewsdesign.com

আখাউড়া স্থলবন্দরটিকে মূলত রপ্তানিমুখী বন্দর বলা হয়। প্রতিদিন এ বন্দর দিয়ে হিমায়িত মাছ, রড, সিমেন্ট ও প্লাস্টিকসহ বিভিন্ন পণ্য রপ্তানি হয় উত্তর-পূর্ব ভারতে।

আখাউড়া স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম বলেন, সরকারি গেজেটে আরও নতুন কিছু পণ্য যুক্ত হওয়ার ফলে আলু ও সুতা ছাড়া সকল পণ্য আমদানি করা যাবে আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে। ভূটানের পণ্য আমদানির অনুমতি পেয়ে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। ভারতের আসাম হয়ে আখাউড়া স্থলবন্দরে ভুটান থেকে আমদানি পণ্য আসবে।

তিনি বলেন, আমদানি পণ্যের তালিকা ইতিমধ্যে আমাদের হাতে এসেছে। আমরা ভুটানের কোন কোন পণ্যগুলোর আমাদের দেশে চাহিদা আছে এবং আমদানি ব্যয় কেমন হবে, তা দেশে আমদানিতে দাম কেমন পড়বে- সকল বিষয় গুলো পর্যালোচনার পর সিদ্ধান্ত নেব কোন পণ্য আমদানি করব।

আখাউড়া স্থলবন্দরের সহকারী পরিচালক মো. আতিকুল ইসলাম এই বিষয়ে বলেন, ‘ভূটান থেকে আমদানিযোগ্য পণ্যের নতুন তালিকা আমাদের কাছে এখনও পাইনি। আমরা চাই আমদানি বাড়ুক, তাহলে বন্দর কর্তৃপক্ষের রাজস্ব বাড়বে’।


মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com