আপডেট

x

ভারত থেকে সুস্থ হয়ে দেশে ফিরলেন ৬জন মানসিক ভারসাম্যহীন

বৃহস্পতিবার, ১৮ নভেম্বর ২০২১ | ৫:২২ অপরাহ্ণ | 95 বার

ভারত থেকে সুস্থ হয়ে দেশে ফিরলেন ৬জন মানসিক ভারসাম্যহীন

ভারতের ত্রিপুরায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৬জন মানসিক ভারসাম্যহীন বাংলাদেশে প্রত্যাবর্তন করেছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া স্থলবন্দর বন্দর দিয়ে তারা দেশে ফিরেন। তারা বিভিন্ন সময়ে বাংলাদেশ থেকে নিখোঁজ ছিল। ভারতের ত্রিপুরায় পুলিশ তাদের আটক করলে এতো দিন মর্ডান সাইকিয়াট্রিক হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হওয়ার পর আদালতের নির্দেশে তাদের বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হয়।


ফেরত আসারা হলেন, বগুড়া জেলার দুপচাচিয়া উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের মো. মমতাজের ছেলে জিয়ারুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ জেলা সদরের ভাস্করটিলা গ্রামের শামসুদ্দীনের মেয়ে মোছা. হানিফা আক্তার, ময়মনসিংহ জেলার ফুলবাড়িয়া উপজেলার চরকালি গ্রামের মৃত ছমেদ আলীর মেয়ে আল্পনা খাতুন, কেরানীগঞ্জের মুন্সি নোয়াদ্দা গ্রামের মৃত বিরিচ খানের মেয়ে রীনা আক্তার, জামালপুর জেলা সদরের নারকেলী গ্রামের মৃত নবীর উদ্দিনের ছেলে মানিক মিয়া ও মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার ডরিতাজপুর গ্রামের মানিক মিয়ার ছেলে শাহজাহান মিয়া।

webnewsdesign.com

একাধিক নথিপত্র সূত্রে জানা গেছে, ফেরত আসা ছয় বাংলাদেশিই মানসিক ভারসাম্যহীন অবস্থায় ত্রিপুরায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হতে আটক হন। পরে আদালতের নির্দেশে আগরতলার মর্ডান সাইক্রিয়াট্রিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। এদের অনেকেই এই হাসপাতালে চার থেকে পাঁচ বছর বা আরও বেশি সময় ধরে চিকিৎসাধীন ছিলেন। অবস্থার কিছুটা উন্নতি হওয়ার পর তাদের দেশে ফেরত আনার উদ্যোগ নেওয়া হয়। এই হাসপাতালে পাচারের শিকার আরো অনেক বাংলাদেশি আছেন বলে জানা গেছে।

উদ্ধারকৃত হানিফা আক্তার ছেলে ইয়াছিন জানান, পাঁচ বছর আগে হঠাৎ করে তাদের মা হারিয়ে যান। তারা ভেবেছিলেন কোনো আত্মীয়ের বাড়িতে গেছেন। পরে নানাবাড়ি করিমগঞ্জ থানায় খোঁজ করেন। কিন্তু পাননি। পরে মে মাসে পুলিশ খোঁজ নিতে বাড়িতে এলে জানতে পারেন আগরতলায় আছেন তার মা।

জিয়ারুলের ভায়রা ভাই মোহাম্মদ রাজ্জাক জানান, ২০১৪ সালে তার স্ত্রীর বোনের স্বামী জিয়ারুল নিখোঁজ হয়ে যান। তিনি কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। এমন একজন মানুষ কীভাবে ভারতে পাচার হলেন সেটা নিয়ে তারাও বিস্মিত।

নো ম্যান্স ল্যান্ডে হস্তান্তর অনুষ্ঠানে ভারতের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন ভারতের আগরতলা নিযুক্ত সহকারী হাই কমিশনার মোহাম্মদ জোবায়ের হোসেন, প্রথম সচিব মোঃ রেজাউল হক চৌধুরী, প্রথম সচিব এস এম আসাদুজ্জামান।
বাংলাদেশের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুমানা আক্তার, সহকারী কমিশনার ভূমি জনাব মোঃ সাইফুল ইসলাম,আখাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মিজানুর রহমান।


মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com