আপডেট

x

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার নবনির্বাচিত কাউন্সিলর হলেন যারা

সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১ | ৫:২৩ পূর্বাহ্ণ | 3202 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার নবনির্বাচিত কাউন্সিলর হলেন যারা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার নির্বাচনের ফলাফল বেসরকারি ভাবে ঘোষণা করা হয়েছে। এই পৌরসভার ১২টি ওয়ার্ডের মধ্যে ১১টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৪টি ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন প্রার্থীরা। এরমধ্যে ৬নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ওমর ফারুক জীবন কোন প্রার্থী না থাকায় আগেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয়লাভ করেছেন।


বাকী ওয়ার্ড গুলোর মধ্যে ১নং ওয়ার্ডে জামাল হোসেন তার বোতল প্রতীকে২হাজার ৫৮২ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পেয়েছেন বকুল মিয়া উটপাখি প্রতীকে পেয়েছেন এক হাজার ৬০২ ভোট। এছাড়াও কাউন্সিলর প্রার্থী মাসুদুর রহমান ওয়াসিম পাঞ্জাবি প্রতীকে পেয়েছেন একহাজার ১০৪ ভোট।

webnewsdesign.com

২নং ওয়ার্ডে নির্বাচনে শেখ মো. মাহফুজ মিয়া তার পানির বোতল প্রতীকে ১হাজার ৭০৪টি ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পেয়েছেন মাহমুদুল হাসান পাঞ্জাবি প্রতীকে পেয়েছেন এক হাজার ৩৩৯টি ভোট। এছাড়াও কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল বাশার উটপাখি প্রতীকে পেয়েছেন একহাজার ৭২ ভোট।

৩নং ওয়ার্ডে আক্তার হোসেন চৌধুরী ডালিম প্রতীকে ২হাজার ৭০৪টি ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পেয়েছেন শফিকুল ইসলাম উটপাখি প্রতীকে পেয়েছেন এক হাজার ৯১টি ভোট।

৪নং ওয়ার্ডে মিজানুর রহমান আনসারী উটপাখি প্রতীকে ১হাজার ৪৮০টি ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কিংকর ঘোষ পাঞ্জাবি প্রতীকে পেয়েছেন ৮০৬টি ভোট। এছাড়াও কাউন্সিলর প্রার্থী অজিত কুমার দাস পানির বোতল প্রতীকে ৬৩১ ভোট, নাসির আহমেদ ব্লাক বোর্ড প্রতীকে ২৭৩ ভোট, মইনুল ইসলাম (টুটুল) টিউব লাইট প্রতীকে ২৯৩ ভোট, আহসান উল্লাহ হাসান টেবিল ল্যাম্প প্রতীকে ১৩২ ভোট ও মোস্তাফিজুর রহমান ডালিম প্রতীকে পেয়েছেন ১৭ ভোট।

৫নং ওয়ার্ডে আব্দুল মালেক পানির বোতল প্রতীকে এক হাজার ৭৮৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আলী মোহাম্মদ মাসুম পাঞ্জাবি প্রতীকে এক হাজার ৩২৮ ভোট। এছাড়া মো. রণি ডালিম প্রতীকে ২৪১ ভোট, বিশ্বনাথ পাল উটপাখি প্রতীকে ১৪৪ ভোট ও বিজয় মল্লিক টেবিল ল্যাম্প প্রতীকে ৭০ ভোট পেয়েছেন।


৭নং ওয়ার্ডে ফারুক মিয়া পাঞ্জাবি প্রতীকে এক হাজার ৮০৫টি ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইউনুছ মিয়া টেবিল ল্যাম্প প্রতীকে পেয়েছেন এক হাজার ৫৫৩ ভোট। এছাড়া আনিছুর রহমান গাজর প্রতীকে পেয়েছেন ৪০৮ ভোট, জাহাঙ্গীর আলম কেবিনেট প্রতীকে ৬৯২ ভোট, মোস্তাক আহমেদ উটপাখি প্রতীকে ৪২ভোট, ইয়াকুব আলী ডালিম প্রতীকে ১৯৪ ভোট, জামির মিয়া পানির বোতল প্রতীকে ৩০৩ ভোট, জুনায়েদ মিয়া ব্লাকবোর্ড প্রতীকে ৭২ ভোট ও ফেরদৌস মিয়া ব্রিজ প্রতীকে ৭৭৩ ভোট পেয়েছেন।

৮নং মীর মোহাম্মদ শাহীন ব্লাক বোর্ড প্রতীকে এক হাজার ২৫৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সৈয়দ সাজ্জাদ হায়দার করিম পাঞ্জাবি প্রতীকে পেয়েছেন এক হাজার ১২৯ ভোট। এছাড়া খন্দকার শাহনেওয়াজ ফাইল কেবিনেট প্রতীকে ১৫৭ ভোট, আবুল খায়ের ডালিম প্রতীকে ১২৭ ভোট, মামুন খন্দকার পানির বোতল প্রতীকে ৩৭৮ভোট, শাহ মো. শরীফ টেবিল ল্যাম্প প্রতীকে ২৬৭ ভোট ও মাইনুল ইসলাম উটপাখি প্রতীকে ৬২৯ ভোট পেয়েছেন।

৯নং ওয়ার্ডে ফারুক মিয়া পানির বোতল প্রতীকে ২হাজার ৪১৯ ভোট পদ পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মুরাদ খান পাঞ্জাবি প্রতীকে ২ হাজার ৩৫১ ভোট পেয়েছেন। এছাড়াও কবির হোসাইন উটপাখি প্রতীকে ২৮১ ভোট পেয়েছেন।

১০নং ওয়ার্ডে কাউসার মিয়া ফাইল কেবিনেট প্রতীকে ৩হাজার ৬২৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শেখ মোহাম্মদ খোকন উটপাখি প্রতীকে ৮২১ ভোট পেয়েছেন। এছাড়া মাকবুল হোসাইন ণ প্রতীকে ৪৫১ ভোট, সামাদ আলী ডালিম প্রতীকে ৭৮ ভোট ও মো. সেলিম ব্লাকবোর্ড প্রতীকে ১৪৪ ভোট পেয়েছেন।

১১নং ওয়ার্ডে সাকিল ফাইল কেবিনেট প্রতীকে ২ হাজার ৩৯২ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আব্দুল হাই ডাবলু ব্লাক বোর্ড প্রতীকে পেয়েছেন। এছাড়া আলমগীর মিয়া গাজর প্রতীকে ২১০ভোট, আবু সায়েদ ডালিম প্রতীকে ৪৩৮ ভোট, ওসমান গণী উটপাখি প্রতীকে ৮০৬ ভোট, কামাল মিয়া টেবিল ল্যাম্প প্রতীকে ১১৯ ভোট, মহসিন মিয়া পাঞ্জাবি প্রতীকে ৭০৬ ভোট ও হারুনুর রশিদ পানির বোতল প্রতীকে ৩০৯ ভোট পেয়েছেন।

১২নং ওয়ার্ডে আনোয়ারুল ইসলাম ব্লাক বোর্ড প্রতীকে ৩হাজার ৬৫১ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রফিকুল ইসলাম নেহার টেবিল ল্যাম্প প্রতীকে ২হাজার ৬১৭টি ভোট পেয়েছেন। এছাড়া আওয়াল মিয়া পাঞ্জাবি প্রতীকে ৫৮৬ ভোট ও মো. হানিফ উটপাখি প্রতীকে ২৭০ ভোট পেয়েছেন।

রোববার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ শেষে এই ফলাফল জানান নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কমিশনার জিল্লুর রহমান।

রাফি/-

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com