আপডেট

x

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় এক দিনে তিন আত্মহত্যা

শনিবার, ১২ জুন ২০২১ | ১০:০৮ অপরাহ্ণ | 214 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় এক দিনে তিন আত্মহত্যা
২৫০শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় একই দিনে পৃথক তিন উপজেলায় তিনটি আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার দুপুরে তিন মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ। জেলার বিজয়নগর, নবীনগর ও কসবা উপজেলায় এসব ঘটনা ঘটে। মারা যাওয়াদের মধ্যে দুইজন নারী ও একজন পুরুষ।


নবীনগর থানা পুলিশ পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুর রশীদ জানায়, নবীনগরের পৌর এলাকার ভোলাচংয়ে মৃত বাছির মিয়ার ছেলে আল-আমিন (২৩) অনেকটা অার্থিক অনটনে ছিলেন। এই অভাব-অনটনের জেরে তার স্ত্রীও শ্বশুর বাড়িতে চলে গেছেন। ধারণা করা হচ্ছে, হতাশাগ্রস্থ হয়ে শনিবার সকালে ফাঁসাইট ঝুলে আল-আমিন আত্মহত্যা করেছেন। লাশ উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

webnewsdesign.com

জেলার কসবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর ভূঞা জানান, উপজেলার কায়েমপুর ইউনিয়নের জাজিরাসার গ্রামের সুমা আক্তার (২৪) নামের এক নারীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সুমা আক্তার ওই এলাকার ওমান প্রবাসী সোহেল মিয়া। ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহের জেরে সুমা আত্মহত্যা করেছেন। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসলে মৃত্যুর কআরণ জানা যাবে।

বিজয়নগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিকুর রহমান জানান, উপজেলার পত্তন ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামের মাহবুব মিয়ার স্ত্রী ৪সন্তানের জননী আকলিমা (৩৫) চালের পোকা মারা ঔষধ খেয়ে মৃত্যু বরণ করেছেন বলে জানতে পেরেছি। কিন্তু কি কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন তা জানা যায়নি। তার পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছে, ঔষধ খাওয়ার পর জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে সে মারা যায়। মরদেহ জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য রাখা আছে।

 


মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com