আপডেট

x

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হিন্দু-বৌদ্ধ-খিষ্ট্রান ঐক্য পরিষদের গণঅনশন কর্মসূচী পালিত

শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১ | ১০:১১ অপরাহ্ণ | 71 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হিন্দু-বৌদ্ধ-খিষ্ট্রান ঐক্য পরিষদের গণঅনশন কর্মসূচী পালিত

সারাদেশে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খিষ্ট্রান ঐক্য পরিষদ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার আয়োজনে গণঅনশন-গণঅবস্থান কর্মসূচী পালন করা হয়েছে। শনিবার সকাল ৯টা থেকে এই কর্মসূচী শুরু হয়। সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত এই কর্মসূচী চলে। এতে হিন্দু-বৌদ্ধ-খিষ্ট্রান ঐক্য পরিষদের জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ ছাড়াও হিন্দু সম্প্রদায়ের বিভিন্ন মন্দির এবং দূর্গাপূজা কমিটির নেতাকর্মীরা অংশ গ্রহন করেন।


গণঅনশন-গণঅবস্থান কর্মসূচী পালনকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খিষ্ট্রান ঐক্য পরিষদের সভাপতি দীলিপ নাগ বলেন, এখন দেখা যায় আমাদের ধর্মীয় অনুভূতির উপর আঘাত করে বিভিন্নভাবে আবার আমাদের উপরেই দোষ চাপিয়ে দেয়া হয়। ফেইসবুকের মাধ্যমে বাংলাদেশে যত জায়গায় হামলা করা হয়েছে দোষ চাপিয়ে দিয়ে আমাদের ছেলেরাই জেলে যাচ্ছে। কিন্তু যারা প্রকৃত দোষী তারা মুক্তি পেয়ে যাচ্ছে। কুমিল্লার ঘটনাও এটার প্রত্যক্ষ প্রমাণ। আমরা চাই এ ঘটনার জন্য যারা দায়ী তাদেরকে অবিলম্বে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া হোক। প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের আবেদন সংখ্যালঘুরা কিভাবে এদেশে বসবাস করতে পারে তাদের ধর্মীয় উৎসব পালন করতে পারে, সেদিকে যেন তিনি দৃষ্টি রাখেন। যারা সারাদেশের তান্ডবের সাথে জড়িত সকলের বিচারের দাবী জানান তিনি।

webnewsdesign.com

সভায় বাংলাদেস হিন্দু মহাজোট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার সভাপতি জয় শংকর চক্রবর্তী জানান,সাম্প্রদায়িক সহিংসতা যারা ঘটনার নায়ক তাদেরকে গ্রেপ্তার না করে আমাদের হিন্দু সম্প্রদায়ের ছেলেদের গ্রেপ্তার করে জেলে পাঠানো হচ্ছে। সাম্প্রদায়িক সহিংসতাকারীদের বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স নীতি দ্রুত বাস্তবায়ন করতে হবে। সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে।

তিনি অভিযোগ করে আরো বলেন,এখনো সরাদেশে হামলা ভাংচুর অব্যাহত আছে। গতকাল রাতেও হবিগঞ্জ জেলার লাখাই উপজেলার মোড়াকুড়ি গ্রামে স্থানীয় চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দিরে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এমন ধরনের নেক্কার জনক হামলার ঘটনা বন্ধের ব্যাপারে যাথাযথ ভূমিকা রাখার জন্যে প্রধান মন্ত্রীর কাছে দাবী জানাচ্ছি।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আদেশ চন্দ্র দেব, ব্রাহ্মণবাড়িয়া কালভৈরব মন্দির কমিটির সভাপতি পলাশ কুমার ভট্টাচার্য, বাংলাদেশ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার সভাপতি খোকন কান্তি আচার্য, ঐক্য পরিষদের সদস্য ও আইনজীবী ঐক্য পরিষদের সভাপতি এডভোকেট অসীম চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট যখন শর্মা, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাবেক সাধারন সম্পাদক এডভোকেট প্রণব কুমার দাস উত্তম, ঐক্যপরিষদ নেতা সুভাষ দেবনাথ, বীর মুক্তিযোদ্ধা সুধীর চন্দ্র দাস, বিজয় কুমার দেব সহ বিভিন্ন পর্যায়ের হিন্দু সম্পদায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 


মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com