আপডেট

x

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কোর্টের আদেশ অমান্য করে জায়গা দখলের চেষ্টা,প্রতিবন্ধীসহ আহত-৪

বুধবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৯:৪৭ অপরাহ্ণ | 45 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কোর্টের আদেশ অমান্য করে জায়গা দখলের চেষ্টা,প্রতিবন্ধীসহ আহত-৪

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আদালতের নিষেধাজ্ঞার আদেশের অমান্য করে জায়গা দখলে বাধা দেওয়ায় একই পরিবারের এক প্রতিবন্ধী সহ ৪জনকে কুপিয়ে রক্তাক্ত করেছে প্রতিপক্ষের লোকজনেরা৷ বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে সদর উপজেলার বুধল ইউনিয়নের সুতিয়ারা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। আহতদের উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে৷ ৯৯৯’এ কল পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। তবে এই ঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি।


আহতরা হলেন, মৃত শেখ ফুল মিয়ার ছেলে শেখ মো. দুলাল মিয়া, তার স্ত্রী আইরিন আক্তার, চাচাতো ভাই ইছাক মিয়া ও ইছাক মিয়ার প্রতিবন্ধী ছেলে রফিক মিয়া।

webnewsdesign.com

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শেখ মো. দুলাল মিয়ার সাথে গত দুইবছর যাবত একটি জায়গা নিয়ে একই এলাকার মৃত সিরাজ মিয়ার ছেলে জুরু মিয়ার পরিবারের বিরোধ চলে আসছি। এই বিষয়ে শেখ মো. দুলাল মিয়া আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। আদালত থেকে প্রথমে এই জায়গার উপর ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। পরবর্তীতে এই জায়গা আদালত স্থিতিতাদেশ জারি করে। ফলে এই মামলা নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত কোন পক্ষ এই জায়গায় কোন প্রকার কাজ বা পরবর্তন করতে পারবে না। কিন্তু আজ বুধবার সকালে জুরু মিয়া, তার ছেলে হানিফ মিয়া সহ দলবল নিয়ে দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আদালতের আদেশ থাকা জায়গায় মাটি ফেলে দখল করতে যায়। এই খবরে মামলার বাদি শেখ মো. দুলাল মিয়া ও তার পরিবারের সদস্য বাধা দিতে গেলে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্রসহ হামলা করে। এসময় কুপিয়ে রক্তাক্ত করা হয় শেখ মো. দুলাল মিয়া, তার স্ত্রী আইরিন আক্তার, চাচাতো ভাই ইছাক মিয়া ও ইছাক মিয়ার প্রতিবন্ধী ছেলে রফিক মিয়াকে। পরে জাতীয় জরুরী সেবা নাম্বার ৯৯৯’ এ কল দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। কিন্তু দখলবাজরা এসময় পালিয়ে যায়। আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

এই বিষয়ে ঘটনাস্থলে আসা সদর মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) দেলোয়ার হোসেন জানান, ৯৯৯’এর কল পেয়ে আমরা সুতিয়ারা গ্রামে যাই। কিন্তু এর ভেতরে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে না গেলে আরও বড় কোন ঘটনা ঘটতে পারতো।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com