ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এখনো স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি এখনো সক্রিয় আছে: রেলমন্ত্রী

সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১ | ১০:১০ অপরাহ্ণ | 82 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এখনো স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি এখনো সক্রিয় আছে: রেলমন্ত্রী

আমরা ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় দেখেছি পাকহানাদার বাহিনী যারা বলেছিল আমরা মাটি চাই, মানুষ চাই না। তারা জ্বালাও-পুড়াও করে গ্রামের পর গ্রাম ও এভাবে রেল স্টেশন পুড়িয়েছিল। তবে এরা কোন শক্তি, এরা কারা? আমি মনে করি সে শক্তি এখনো সক্রিয় আছে। তারা ২০১৩/১৪ সালেও এভাবে বাস-ট্রেনে আগুন দিয়েছে, স্টেশনে আগুন দিয়েছে। এই শক্তির বিরুদ্ধে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হওয়া ছাড়া আর কোন বিকল্প নেই। আর যারা এগুলোর সাথে জড়িত, অবশ্যই সরকার তাদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলে জানিয়েছেন রেলপথ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন এমপি।


তিনি সোমবার বেলা আড়াইটার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশনে হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত স্থাপনা পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের এই কথা বলেন।

webnewsdesign.com

এসময় মন্ত্রী বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচারের জন্য আমাদের অপেক্ষা করতে হয়েছে ২১বছর, প্রধানমন্ত্রীর উপর হামলার মামলা ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করতেও আমাদের সময় লেগেছে, সুতরাং তাদের বিচার অবশ্যই হবে।

তিনি বলেন, একই শক্তি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সক্রিয় আছে। এখানে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাইরের লোক আসছে কিনা তাও তদন্ত করে বের করতে হবে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ভেতরের লোকও যদি থেকে থাকে তাও তদন্ত করে বের করতে হবে।

রেলপথ মন্ত্রী বলেন, এই ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মানুষের দূর্ভোগ আরও বাড়বে। স্টেশনসহ রেলওয়ের সব কিছু পুড়িয়ে দিয়েছে তা ঠিক করতে সময়ের প্রয়োজন। সিগন্যাল ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দিয়েছে। এই গুলো আমরা দ্রুত চেষ্টা করবো ঠিক করতে, যেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেল আমরা আবার থামাতে পারি। সবচেয়ে বড় কথা এখন যদি লকডাউন না থেকে ট্রেন চলাচল করতো, তাহলেও কিন্তু আমরা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রেন থামাতে পারতাম না। এতে এই এলাকার মানুষের যে ভোগান্তি হতো, তা কি দিয়ে পূরণ করবো? ঢাকা-চট্রগ্রামের পর গুরুত্বপূর্ণ স্টেশন ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সেই গুরুত্ব বিবেচনা করে দ্রুত কাজ করে ট্রেন চলাচলের ব্যবস্থা গ্রহণের চেষ্টা করা হবে।

মন্ত্রীর সাথে এসময় উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত উদ-দৌলা খান, পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার প্রমুখ।


মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com