আপডেট

x

বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তীতে কারাগারে বন্দি বীর মুক্তিযোদ্ধা,মুক্তির দাবীতে মানববন্ধন

রবিবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০২১ | ৭:৫৮ অপরাহ্ণ | 72 বার

বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তীতে কারাগারে বন্দি বীর মুক্তিযোদ্ধা,মুক্তির দাবীতে মানববন্ধন

দেশমাতৃকার টানে স্বাধীনতার জন্যে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন ২৮বছরের টগবগে যুবক আব্দুস সাত্তার মিয়া। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার নেমতাবাগ থেকে এসে আখাউড়া শহীদ স্মৃতি কলেজে নৈশপ্রহরীর কাজে যোগদান করেন। কলেজের পাশেই একটি জায়গায় কর্তৃপক্ষ বসবাসের সুযোগ করে দেন। বিগত ৩৫ বছর যাবত পরিবার নিয়ে সেখানে বসবাস করে আসছিলেন তিনি। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস! দেশ যখন বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করছে, তখন জেলের চার দেয়ালে বন্দি বীর মুক্তিযোদ্ধা ৭৮ বছরের বৃদ্ধ আব্দুস সাত্তার।


কারাগারে আটক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সাত্তারের মুক্তির দাবীতে আন্দোলনে নেমেছে মুক্তিযোদ্ধারা।

webnewsdesign.com

রোববার সকালে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডের আয়োজনে পৌরশহরের সড়ক বাজারে এড. সিরাজুল হক পৌর মুক্ত মঞ্চের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেয় বীর মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও রাজনীতিবিদসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার শতাধিক মানুষ।

উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডের সাবেক কমান্ডার সৈয়দ জামসেদ শাহ্ সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা বাহার মালদার, উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মো. জয়নাল আবেদীন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ বোরহান উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা খোরশেদ আলম খাদেম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হান্নান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হালিম হেলাল, যুবলীগ নেতা মো. মনির হোসেন ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মো. মনির হোসেন প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন,বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ছাত্তার মিয়া আখাউড়া শহীদ স্মৃতি কলেজের নৈশ প্রহরী হিসেবে চাকুরী করতেন। প্রায় ৩৫  বছর আগে কলেজ কর্তৃপক্ষ তাকে বসবাসের জন্য কলেজের জায়গায় দেন। তিনি সে জায়গায় পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন।

বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, সম্প্রতি এলাকার ভূমি দস্যু মো. রফিকুল ইসলাম প্রকাশ রফিক ভেন্ডার ও তার সহযোগীরা  ষড়যন্ত্র করে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সাত্তার মিয়াকে বাড়ির ভাড়াটিয়া বানিয়ে ২ লক্ষ ২৩ হাজার টাকা বাড়ি ভাড়া বকেয়া দাবী করেন আদালতে মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সাত্তার ও তার দুই ছেলেকে আসামী করা হয়। গত ২ ডিসেম্বর আদালতে হাজিরা দিতে গেলে আদালত অসুস্থ বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সাত্তার মিয়াকে জামিন না দিয়ে জেল হাজতে প্রেরণ করেন। তবে তার দুই ছেলেকে জামিন দেন বিজ্ঞ আদালত।


তারা আরও বলেন, বিজয়ের মাসে একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা কারাগারে আটক জাতিকে কলঙ্কিত করেছে। আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে আটক মুক্তিযোদ্ধার নিঃশর্ত মুক্তি দাবী করেন।অন্যথায় বৃহত্তর আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণার হুঁশিয়ারি দেন মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা। এছাড়া মিথ্যা মামলা দিয়ে মুক্তিযোদ্ধাকে কারাগারে নিক্ষেপ করায় ভূমিদস্যু মো. রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী জানান বক্তারা।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com