বিক্রিতে ধ্বস, দাম কমছে আইফোনের

বৃহস্পতিবার, ৩১ জানুয়ারি ২০১৯ | ৬:১২ অপরাহ্ণ | 287 বার

বিক্রিতে ধ্বস, দাম কমছে আইফোনের

চীন, আমেরিকায় বিক্রিতে রীতিমতো ধস। অন্য দেশেও বিক্রির হার নিম্নমুখী। এমন পরিস্থিতিতে বাজারে টিকে থাকতে আইফোনের দাম কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে আমেরিকার বিখ্যাত প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অ্যাপল।

রয়টার্সের সঙ্গে আলাপকালে অ্যাপলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা টিম কুক জানান, খুব তাড়াতাড়ি তারা দাম কমানোর বিষয়ে ভাবছেন।

‘গত বছর বিশ্ববাজার থেকে আমাদের বৈদেশিক মুদ্রা আয় কমে গেছে। তাই কয়েকটি বাজারে আমরা আইফোনের দাম কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আশা করছি দাম কমালে ওই সব এলাকায় বিক্রি বাড়বে।’

আইফোনের দাম বর্তমানে এক লাখ ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত আছে। কোন দেশে কত টাকা কমানো হবে, সেটি বলেননি কুক।

অ্যাপল মূলত চীনের বাজার নিয়ে চিন্তিত। কয়েক দশক পর দেশটির প্রবৃদ্ধি শ্লথ হয়ে পড়েছে। গত বছর দেশটিতে ১৯৯০ সালের পর সবচেয়ে কম প্রবৃদ্ধি হয়েছে। ২০১৯ সালও চীনের জন্য ভালো হবে না বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এর ভেতর আবার যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাণিজ্যযুদ্ধ চলছে তাদের।

অ্যাপলের বৈশ্বিক আয়ের ১৫ শতাংশই আসে চীন থেকে। কিন্তু কয়েক বছরে সেটি হয়নি।

বছরের প্রথম প্রান্তিকে আইফোনের চাহিদার যে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছিল, প্রকৃতপক্ষে তা কমে গেছে। এই সময় পাঁচ কোটি ইউনিটের পরিবর্তে সাড়ে চার কোটি ইউনিট আইফোনের চাহিদা আছে। এর মধ্যে সাড়ে ছয় ইঞ্চি মাপের আইফোন এক্সএস ম্যাক্সের চাহিদা ৪৮ শতাংশ কমেছে।

দুই দেশের নাজুক অর্থনৈতিক পরিস্থিতির কারণ ছাড়াও কুক মনে করছেন আইফোনের দাম একটু বেশি নির্ধারণ করা হয়েছে। যার কারণে ক্রেতারা মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে।

‘আমাদের কাছে মনে হচ্ছে বেশি দামের কারণেও ক্রেতারা আগ্রহ হারাচ্ছে। ডিসেম্বর থেকে জানুয়ারি মাসের বিক্রি ভালো মনে হচ্ছে। দাম কমালে আরও ভালো হবে বলে আমি বিশ্বাস করি।’

বিক্রি কমার কারণে কয়েকটি বিভাগে কর্মী নিয়োগ বন্ধ করে দিয়েছে অ্যাপল। প্রতিষ্ঠানটি সাধারণত প্রতি বছর বিভিন্ন বিভাগে অনেক কর্মী নিয়োগ দিয়ে থাকে। পরিস্থিতি ঠিক হলে আবার নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে কয়েক দিন আগে জানায় প্রতিষ্ঠানটি।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com