আপডেট

x

প্রশাসনের নিস্কিয়তায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তান্ডব-মোকতাদির চৌধুরী এমপি

সোমবার, ২৯ মার্চ ২০২১ | ১১:০৯ অপরাহ্ণ | 187 বার

প্রশাসনের নিস্কিয়তায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তান্ডব-মোকতাদির চৌধুরী এমপি

হেফাজতের তাণ্ডবের সময় প্রশাসন ও পুলিশের নিস্কিয়তার কারণেই ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তান্ডব ঘটিয়েছে হেফাজতে ইসলাম বলে অভিযোগ করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী।


সোমবার (২৯ মার্চ) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে তিনি এ কথা বলেন।

webnewsdesign.com

এসময় তিনি বলেন, ২৬ মার্চ দুপুর ৩ টা পর থেকে হেফাজত ইসলামের কর্মীদের দ্বারা পুরো শহরে তান্ডবলীলা চলেছে। রেলস্টেশনটি ভাংচুর করে তছনছ করা হয়েছে। যারা ভাংচুর করেছে তাদের অধিকাংশ কম বয়সী। তাদেরকে ইসলাম কায়েমের প্রলোভন দেখিয়ে কেউ না কেউ এই কাজটি করিয়েছে।

তিনি আরো বলেন, প্রলোভনকারীদের আমরা চিহ্নিত করতে চাই। তারপর তারা বঙ্গবন্ধু স্কয়ারে এসে বঙ্গবন্ধু ম্যুরালসহ অনেকগুলো ধ্বংসাত্মক কাজ করেছে। তারা পর্যায়ক্রমে ডিসি ও এসপি’র বাংলো, এসপি অফিস, সিভিল সার্জন অফিস, মৎস্য অফিসসহ বেশ কিছু কার্যালয় ধ্বংস করে দিয়েছে। শুধু তাই নয় অফিসগুলোর সামনে থাকা ফুলের বাগানগুলোও ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে। দানব ছাড়া কেউ ফুলের বাগান ধ্বংস করতে পারে না। ২০১৬ সালের ১২ জানুয়ারিতে যে হামলা হয়েছিল তার বিচার বিভাগীয় তদন্ত আমি চেয়েছিলাম। কিন্তু তা হয় নি। এটি যদি সঠিক বিভাগীয় তদন্ত হতো তাহলে তার প্রকৃত ঘটনা বেড়িয়ে আসতো। আজকের এই জঘন্য ঘটনা ঘটতো না।
হরতালের দিনে আমাদের জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুনের বাসা ও কার্যালয়, মেয়র নায়ার কবিরের বাস ভবন, ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বাসভবনে আক্রমণ হয়েছে তার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তান্ডবের সময় কারা হামলা করলো, কেন হামলা করলো আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী জেলা প্রশাসন, কেন তারা নিষ্ক্রিয় থেকে নিরব ভূমিকা পালন করলো, কেন সদর থানা থেকে এমন মাইকিং করা হলো তার একটা ব্যাখা প্রয়োজন।

এমপি মোকতাদির চৌধুরী বলেন, আমরা সমগ্র বিষয়টি উপরে বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবী করছি। যে সমস্ত বিভাগ আমাদের বারবার তাগাদা সত্ত্বেও ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের পাশে দাঁড়ায় নাই তাদের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে তদন্ত স্বাপেক্ষে আইনের আওতায় আনার দাবী জানাই। নাসিরনগরে ঘটনা উদুর পিন্ডি ভুদুর ঘাড়ে চাপানো চেষ্টা করেছিল। এখনো পর্যন্ত নাসিরনগর ঘটনার কোনো বিচারের সম্মুখিন করা হয় নাই। এই জন্যই আজকের এই গোষ্ঠীটি এই ধরনের কাজ করে থাকে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া এই পর্যন্ত ঘটে যাওয়া এই সমস্ত সকল ঘটনার বিভাগীয় তদন্ত চাই এবং দোষীদের আইনের আওতায় আনার দাবী জানান তিনি।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার,সহ সভাপতি তাজ মোহাম্মদ ইয়াসিন,যুগ্ম সম্পাদক মাহবুবুল বারি চৌধুরী মন্টু প্রমুখ।
পীযূষ কান্তি আচার্য


মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com