প্রধানমন্ত্রীর বেয়াইয়ের ভাই সেজে প্রতারণা, পুলিশের জালে দুই প্রতারক

শনিবার, ২৬ অক্টোবর ২০১৯ | ১০:৩৯ পিএম | 298 বার

প্রধানমন্ত্রীর বেয়াইয়ের ভাই সেজে প্রতারণা, পুলিশের জালে দুই প্রতারক

প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার বেয়াই খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ভাই খন্দকার বাবর পরিচয়ে প্রতারণার অভিযোগে দুই প্রতারককে আটক করেছে পুলিশ।

আটকরা হলেন, কুষ্টিয়া জেলার মনোহরদিয়া এলাকার মৃত সাহার আলীর ছেলে ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার চেলিখলা পশ্চিম পাড়া শাহী জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ মুফতী আঃ রহিম(৩৩) এবং ঝালকাঠি জেলার লালমোন পোনাবাল্য ইউপির মৃত সোলেমান খাঁর ছেলে ইয়াছিন খাঁ(৪০)।

শনিবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান।

তিনি জানান, গত প্রায় দেড় মাস আগে আমার মোবাইলে একটি কল দিয়ে পরিচয় দেন খন্দকার মোশারফ হোসেনের ছোট ভাই খন্দকার বাবর। সে সময় এই খন্দকার বাবর পুলিশ সুপারকে জানান, নবীনগরের একটি ছেলেকে পুলিশের চাকরি দিতে তিনি সাড়ে ৩লক্ষ টাকা নিয়েছে। সেই টাকা তিনি পুলিশের এডিশনাল আইজি হেমায়েত উদ্দিনকে দিয়েছেন। কিন্তু হেমায়েত উদ্দিন টাকা নিয়ে প্রশাসনের উচ্চ পর্যায়ে দেননি। এই কারণে সেই ছেলের পুলিশের চাকরি হয়নি। এছাড়াও পুলিশ ও প্রশাসনের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে পুলিশ সুপার আনিসুর রহমানের সাথে ১ঘন্টা ২মিনিট কথা বলেন।

বিষয়টি পুলিশ সুপারের সন্দেহ হয়। তিনি ভুয়া খন্দকার বাবরের দেওয়া ঠিকানা অনুযায়ী নবীনগরের গোপালপুরের আবু মুছার ছেলে মোঃ ইসহাককে খুঁজে বের করেন। পরে খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন একটি ভুয়া চক্রের ফাদে পড়েছে ইসহাক।

পুলিশ সুপার এসব ঘটনা তদন্ত করে বের করতে দায়িত্ব দেন নবীনগর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেহেদী হাসানকে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেহেদী হাসান ও নবীনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রাজু আহমেদ ঘটনা উদঘাটনে তদন্তে নেমে পড়েন।
পড়ে দীর্ঘদিন পর শুক্রবার দুপুরে ঝালকাঠি থেকে ইয়াসিন খাঁন (৪০) কে আটক করে। পাশাপাশি তার সহযোগী নবীনগর উপজেলার চেলিখলা পশ্চিম পাড়া শাহী জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ মুফতী আঃ রহিম(৩৩)কে আটক করা হয়।

পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান জানান, আটককৃত প্রতারকরা সারাদেশে প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ে ফোন পরে মন্ত্রী-এমপি সহ বিভিন্ন জনের পরিচয় দেয়। এতে তারা কয়েক জায়গায় সফলও হয়েছে। তারা ফোনে প্রতারণা করে কুমিল্লার ডিবিতে এক এসআইকে বদলী করিয়েছে। এমন অন্তত ৬টি ঘটনায় তারা জড়িত।

তাদের বিরুদ্ধে প্রতারণা অভিযোগে মামলা করেছে প্রতারণার শিকার মোঃ ইসহাক। আদালতে হাজির করে তাদেরকে ৭দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হবে।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com