আপডেট

x

পৃথিবীর অসুখ

বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১ | ২:৪৭ পূর্বাহ্ণ | 261 বার

পৃথিবীর অসুখ

পৃথিবীর অসুখ,
মানুষ বেঁচে থাকতে উন্মুখ,
সংখ্যা গুনে দিন, কতো প্রাণ যায়,
কত শিশু, যুবা, কতো বৃদ্ধ হায়!


মানুষ নিজেরাই, বিগত শতকে, বিপ্লব আনি,
ধ্বংস করেছে, মাটি, বায়ু, পানি,
পৃথিবীর হৃদপিন্ড, পৃথিবীর ফুসফুস,
প্রাকৃতিক আর বিশুদ্ধ, নেই কিছুই,
এমনকি মানুষ, এমনকি মানুষ।

webnewsdesign.com

পৃথিবীর আজ শ্বাসকষ্ট,
মানুষের ও তাই,
পৃথিবীর সঞ্জীবনী নালা গুলো ব্লক,
মানুষের ও তাই।

পৃথিবী আজ উত্তপ্ত,
মানুষের ও জ্বর,
আসছে, বন্যা, জলোচ্ছাস, দাবানল, ঝড়।

জ্বলছে মানুষ, পেটে গ্যাস্ট্রিক,
বন্যার মত শরীরে পানি,
ডেঙ্গু, করোনা,
বিকল হৃদপিন্ড, লিভার, কিডনি।

বাঁচার আশায়, গাছ লাগায়নি,
কখনো জীবনে, পানি ও দেয়নি,
কেটেছে গাছ, উজাড় পৃথিবীর ফুসফুস,
কতো সিলিন্ডার আজ কিনছে মানুষ!


মাকে ধ্বংস করে, যে উন্নতি, যে বিলাস,
তা অভিশপ্ত, করবেই করবে গ্রাস,
এতো অত্যাচারিত আজ হে ধরণী,
মাশুল দিতে হবে, আনা গুনি গুনি।

এতো এতো মানুষের মরণ দেখি,
হই আবেগী, মৃত্যু স্ট্যাটাস পড়ি,
পাপকাজ যা আছে,
কিছুই না ছাড়ি, বরং আরো বেশি বেশি করি।

কতটা বিক্ষত হলে, পৃথিবী কাঁদে,
অপারগ হয়ে, দেখে মৃত্যু মিছিল,
কতটা রুষ্ঠ হলে, রেগে যান খোদা,
শাস্তি দেন, যিনি দয়াময় ও ক্ষমাশীল।

গরীবের ধন, ঘরে তুলে লন,
বন্ধ আহার, রোগের কারণ,
তবুও অসহায়, শিকার করোনার,
শুধু টাকা থাকলেই, উপায় আছে বাঁচার?

গরীবে, থাকে কই আর কি খায়,
টাকা নেই তার, অসুখ ও কম,
শুধু সুচিকিৎসা বাঁচাতে পারে না,
হয়েছে বোঝা, লাগে যে খোদার হুকুম।

প্রত্যেক, জাতির ধ্বংসের আগে,
আসে সাবধান বাণী,
সফল তারাই, ফিরেছে যে তা শুনি।

যে অসুখ, মানুষ করেছে কামাই,
চলে কি যাবে, মূল্য ছাড়াই?
ক্ষমা কি চাই? হে প্রভু,
বলি কি? ভুল হবে না, আর কভু।

ছোট্ট এই জীবনে ভাই,
শপথ নেই সবাই,
করবো না অন্যায়, পাপ কাজ আর,
ভালো কাজে যেনো, আগে থাকি সবার।

লেখক-
ডা. সৈয়দ আরিফুল ইসলাম
এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য), এমডি (বিএসএমএমইউ), এফআইপিএম (ইন্ডিয়া), ইন্টারভেনশনাল পেইন ম্যানেজমেন্ট স্পেশালিস্ট।
ইএমও, ২৫০শয্যাবিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতাল।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com