আপডেট

x

পশ্চিমবঙ্গের সমুদ্রসৈকত দিঘায় শুরু হয়েছে আম্পানের তাণ্ডব

মঙ্গলবার, ১৯ মে ২০২০ | ১১:০৩ অপরাহ্ণ | 148 বার

পশ্চিমবঙ্গের সমুদ্রসৈকত দিঘায় শুরু হয়েছে আম্পানের তাণ্ডব

সুপার সাইক্লোন আম্পানের প্রভাবে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পূর্ব মেদিনীপুর জেলার অন্যতম জনপ্রিয় সমুদ্রসৈকত দিঘায় শুরু হয়ে গিয়েছে তাণ্ডব।


মঙ্গলবার রাতে আম্পানের প্রভাবে তুমুল বৃষ্টি শুরু হয়ে গিয়েছে। সঙ্গে প্রবল বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইছে। এই খবর জানিয়েছে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস ও জিনিউজ।

webnewsdesign.com

তাদের খবরে বলা হয়, মঙ্গলবার সকাল থেকেই ক্রমশ সমুদ্র তার রূপ বদলাতে শুরু করে। যত বেলা গড়িয়েছে ততই ক্রমশ ভয়ঙ্কর হয়ে উঠেছে সমুদ্র। অবিরত ঢেউয়ের গর্জন আর ফুঁসছে সমুদ্র।

খবরে আরও উল্লেখ করা হয়, দিঘা থেকে মাত্র ৫১০ কিলোমিটার দূরে এখন অবস্থান করছে অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়টি। এরই মধ্যে ওই এলাকায় প্রকম্পিত হচ্ছে। ভয়ঙ্কর গতিতে বাংলা ও ওড়িশার দিকে এগিয়ে আসছে সুপার সাইক্লোন আম্পান। আবহাওয়া দফতরের তরফে এর গতি যে পরিমাণ হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে তার তুলনা হতে পারে ১৯৯৯ সালে ওড়িশার সাইক্লোনের সঙ্গেই।

আশঙ্কা করা হচ্ছে, আগামীকাল বুধবার দুপুরের পর এটি আছড়ে পড়বে সাগরদ্বীপসহ সুন্দরবন এলাকায়।

বিশেষজ্ঞদের ধারণা, তিনভাবে এটি আঘাত করবে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিকে। প্রথমে হোড, তারপর আই ও শেষ আম্পানের টেল আছাড় খাবে ভূ-ভাগে।


এদিকে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হওয়া ঘূর্ণিঝড় আম্পান বাংলাদেশের কাছাকাছি চলে এসেছে। বর্তমান অবস্থায় দেশের আবহাওয়াবিদরা ধারণা করছেন, এটি আগামীকাল বিকাল থেকে সন্ধ্যার মধ্যে বাংলাদেশের ওপর আছড়ে পড়তে পারে।

দেশের আবহাওয়া অধিদফতরের হিসাবে খুলনা ও চট্টগ্রাম উপকূলের মধ্যবর্তী অঞ্চল দিয়ে বাংলাদেশ উপকূল অতিক্রম করতে পারে আম্পান। অন্যদিকে ভারতীয় আবহাওয়াবিদরা বলছেন, পশ্চিমবঙ্গের দীঘা এবং বাংলাদেশের হাতিয়ার মাঝামাঝি সুন্দরবন ও আশপাশের এলাকার কথা।

আবহাওয়া অধিদফতরের হিসাব অনুযায়ী, বাতাসের সর্বোচ্চ গতি ঘণ্টায় প্রায় ২৫ কিলোমিটার কমেছে। তবে এখনও এটি সুপার সাইক্লোন রূপেই রয়েছে।

মঙ্গলবার বিকাল ৩টা পর্যন্ত তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে আবহাওয়া অধিদফতর বলেছে, সুপার সাইক্লোন কেন্দ্রের ৮৫ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ২০০ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ২২০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এর আগে দুপুর ১২টা পর্যন্ত তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে আবহাওয়া অফিস বলেছিল, সুপার সাইক্লোন কেন্দ্রের ৯০ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ২২৫ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ২৪৫ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

সূত্র-যুগান্তর

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com