ধর্ষণের অভিযোগে মামলা, সেই শিশুর পাশে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি

শনিবার, ১১ এপ্রিল ২০২০ | ১২:৪১ পূর্বাহ্ণ | 709 বার

ধর্ষণের অভিযোগে মামলা, সেই শিশুর পাশে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে এক চাতাল কল শ্রমিকের ৯বছরের কন্যা শিশুকে ধর্ষণে অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। শুক্রবার ভোররাতে শিশুটির মা বাদি হয়ে আশুগঞ্জ থানায় মামলাটি করেন। এতে আসামী করা হয় পুলিশের কাছে আটক লিটন মিয়া (২৫)। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আশুগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাবেদ মাহমুদ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মেয়েটিকে নিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় আশুগঞ্জ থানায় হাজির হয় তার মা। সেখান থেকে পুলিশ ওই শিশুটিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করেন। শিশুটির গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরে, তার পরিবার আশুগঞ্জে একটি চাতালকলে শ্রমিক হওয়ায় সেখানেই বসবাস করেন।


হাসপাতালে ভর্তি করার পর পাশে এসে দাঁড়িয়েছে সাংবাদিক ও রাজনৈতিক ব্যক্তিরা। রাতে শিশুটিকে রক্ত দিয়েছেন যমুনা টেলিভিশন ও যুগান্তরের সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম। এছাড়াও সাংবাদিক শফিক শিশুটিকে আর্থিক ভাবে সহযোগিতা করেন। এদিকে শিশুটির চিকিৎসার যাবতীয় ঔষধ দিচ্ছেন আরেক সংবাদকর্মী আজহার উদ্দিন।

রাত থেকে শিশুটির পরিবারের পাশে থেকে যাবতীয় সহযোগিতা করে চলেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল। ঘটনাটি জানতে পেরে রুবেল হাসপাতালে ছুটে যান। শিশুটির পরিবার চাতাল কল শ্রমিক ও অসহায় হওয়ায় ছাত্রনেতা রুবেল তাদের সকল বিষয়ে সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন। রাতেই তিনি শিশুটির পরিবার সদস্যদের সাথে নিয়ে গিয়ে এই ঘটনায় মামলার এজহার লিখেন। পরে মধ্যরাতে রুবেল নিজেই আশুগঞ্জ থানায় যান মামলাটি এজহার ভুক্ত করতে। মামলাটি ভোররাতে এজহার ভুক্ত হওয়ার পর তিনি বাড়িতে ফিরে আসেন। শুক্রবার দুপুরের দিকে তিনি আবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে যান শিশুটির শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিতে। এসময় আইনজীবীদের সাথে যোগাযোগ করে শিশুটির পরিবার থেকে ওকালতনামা নেন। শিশুটির পরিবারের এই ধর্ষণ মামলা রুবেলের হস্তক্ষেপে বিনা খরচে কাজ করার দায়িত্ব নেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া আদালতের আইনজীবী ইকরাম হোসেন ডালিম। ৭জন সদস্যের আইনজীবী প্যানেল এই মামলা শিশুটির পক্ষে আইনি লড়াই করবেন।

এছাড়াও ছাত্রনেতা রবিউল হোসেন রুবেল মেয়েটির পরিবারকে ব্যক্তিগত ও সহকর্মীদের কাছ থেকে আর্থিক সহযোগিতা দিচ্ছেন।

এ বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল বলেন, ধন্যবাদ জানাই সাংবাদিক ভাইদের। উনারা সংবাদ প্রকাশের পাশাপাশি এই শিশুটির পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। শিশুটির বিষয়ে সংবাদ মাধ্যমে জানতে পেরে হাসপাতালে আসি। ঘটনাটি অত্যন্ত ন্যাক্কারজনক। অসহায়দের পাশে থাকা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। নিজের দায়িত্ববোধ থেকে আমি সাধ্য মত চেষ্টা করে যাব শিশুটি যেন ন্যায় বিচার পায় এবং শারীরিক ভাবে সুস্থ হয়ে উঠে।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com