ধনী-গরীবের মাঝে সেতুবন্ধন সৃষ্টি করে ‘যাকাত’

শুক্রবার, ১৫ মে ২০২০ | ২:২৮ পূর্বাহ্ণ | 191 বার

ধনী-গরীবের মাঝে সেতুবন্ধন সৃষ্টি করে ‘যাকাত’

ইসলামের পঞ্চস্তম্ভের একটি গুরুত্বপূর্ণ স্তম্ভ যাকাত।রোজা হচ্ছে দৈহিক এবাদত আর যাকাত হচ্ছে আর্থিক এবাদত। যাকাতের সাথে রমজান মাসের যদি ও কোন সম্পর্ক নেই, কিন্তু রমজান মাস যেহেতু এবাদতের বসন্তকাল তাই মুসলমানরা অধিক সওয়াব লাভের আশায় রমজান মাসে ই যাকাত প্রদান করে থাকে।


যেকোনো মুসলমান পুরুষ অথবা নারী নিসাব পরিমাণ সম্মপদের মালিক হলে এবং উক্ত সম্পদের উপর বছর অতিক্রান্ত হয়,তবে ঐ ব্যক্তির উপর এ সম্পদের যাকাত আদায় করা ফরজ।

যাকাত একটি অর্থনৈতিক সতন্ত্র এবাদত। নামাজ, রোজার ন্যায় যাকাত আদায় করা ও ফরজে আইন।

আল্লাহতায়ালা পবিত্র আল কোরআনে এরশাদ করেন, তোমরা নামাজ কায়েম কর ও যাকাত দাও। আর তোমরা নিজের জন্য যা ভাল কাজ তা আগেভাগে করিবে তাহা তোমরা আল্লাহর নিকট পাবে(সুরা বাক্বারা, আয়াত১১০)।

আল্লাহতায়ালা আরো বলেন, আপনি গ্রহণ করুণ তাদের মাল হইতে যাকাত যাহা দ্বারা আপনি পাক ও পবিত্র করবেন তাদেরকে(সুরা তাওবা, আয়াত১০৩)।এভাবে কোরআন শরীফের বহু স্থানে যাকাতের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

যাকাত ফরজ হওয়া সত্বে ও যদি কেহ আদায় না করে তাহলে সে ইহকাল ও পরকালে কঠোর শাস্তি ভোগ করতে হবে। যে যাকাত আদায় করবে না সে মহাপাপী ও ফাসিক হবে,আর যে ব্যক্তি যাকাত অস্বীকার করবে সে কাফের হয়ে যাবে।


যাকাত প্রদান যাকাত দাতার অন্তর কে পবিত্র করার পাশাপাশি তার মালকে পবিত্র ও বৃদ্ধি করে। কৃপণতার অভিশাপ থেকে মানুষকে মুক্তি দিয়ে পরোপকারী হতে সাহায্য করে যাকাত।

দরিদ্রতা দূর করে দেশকে উন্নতির পথে পরিচালিত করতে যাকাতের রয়েছে ব্যাপক ভূমিকা। বেকারদের কর্মের ব্যবস্থা করতে যাকাত একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়ের সূচনা করে। দুস্থ, অসহায়, এতিম, বিধবা সহ সমাজের বিত্তহীন মানুষদের পাশে দাঁড়াতে উদ্বুদ্ধ করে যাকাত।ধনী গরিবের মাঝে ভালবাসার সেতুবন্ধন হলো যাকাত।

অতএব আসুন,আমাদের যাদের উপর যাকাত ফরজ হয়ে আছে আমরা এই যাকাত আদায়ের মাধ্যমে আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভ করি, এবং আমাদের সমাজে পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর সাহায্যে এগিয়ে আসি।

লেখক
যুগ্ম সম্পাদক, ইসলামী ঐক্যজোট
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখা।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com