দ্বিতীয় দিনেও চলছে নৌ-ধর্মঘটে আশুগঞ্জ বন্দরে তেল ও পণ্যবাহী জাহাজ আটকা

বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০ | ৭:০৩ অপরাহ্ণ | 86 বার

দ্বিতীয় দিনেও চলছে নৌ-ধর্মঘটে আশুগঞ্জ বন্দরে তেল ও পণ্যবাহী জাহাজ আটকা

সারাদেশে নৌ-পথে চাঁদাবাজি, সন্ত্রাস, ডাকাতি পুলিশি নির্যাতন বন্ধসহ ১১ দফা দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মতো চলছে অনির্দিষ্টকালের জন্য নৌ ধর্মঘট।


এর ফলে বুধবার পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ নৌ-বন্দরে আটকা পড়েছে অর্ধ শতাধিক তেল ও পণ্যবাহী জাহাজ।

webnewsdesign.com

সকাল থেকে নৌ শ্রমিকদের ধর্মঘটের কারণে কাজে যোগ দেয়নি কেউ। এর ফলে জাহাজ থেকে পণ্য খালাসে নেমেছে ধীরগতি। অন্যদিকে আশুগঞ্জের চার শতাধিক নৌযান শ্রমিক অলস সময় অতিবাহিত করছেন।

আশুগঞ্জ নৌবন্দর সূত্রে জানা যায়, সারাদেশে নৌ-পথে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, ডাকাতি, পুলিশি নির্যাতন, শ্রমিকের বিরুদ্ধে মামলা বন্ধ,  বকেয়াসহ খাদ্যভাতা প্রদান, নৌ পরিবহন অধিদপ্তরের অব্যবস্থাপনা ও শ্রমিক হয়রানী বন্ধ, ভারতগামী শ্রমিকদের ল্যান্ডিং পাশ, প্রভিডেন্ট ফান্ড গঠন, মৃত্যুকালীন ভাতা দশ লাখ টাকা নির্ধারণসহ ১১ দফা দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য ১৯ অক্টোবর দিবাগত রাত থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য নৌযান ধর্মঘট শুরু হয়। কেন্দ্রীয় নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের ডাকে শ্রমিকরা এই ধর্মঘট শুরু করে। এতে মঙ্গলবার সকাল থেকে আশুগঞ্জ নৌবন্দরে আটকা পড়ে বেশ কয়েকটি তেল ও পণ্যবাহী জাহাজ। শ্রমিকরা কাজে যোগ না দেয়ার কারনে পণ্য খালাস বন্ধ রয়েছে।

বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের আশুগঞ্জের কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক হাবিবুল্লাহ বাহার জানান, ২০১৮ সাল থেকে বিভিন্ন সময়ে ১১ দফা দাবিতে আমরা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট পালন করি। কিন্তু নৌযান মালকরা আমাদের যৌক্তিক দাবিগুলো এখনো মেনে নেন নি। যার কারনা আবারো আমরা ধর্মঘট পালন করছি। তবা সাধারণ মানুষের চলাচলের বিষয়টি বিবেচনায় রেখে যাত্রীবাহী যান চলাচল করার জন্য বলা হয়েছে।


মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com