আপডেট

x

দুই ছেলেসহ বাবা নিহত: ট্রেন আসার সময় খোলা ছিল ক্রসিংয়ে গেইট 

রবিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ২:৫৪ অপরাহ্ণ | 129 বার

দুই ছেলেসহ বাবা নিহত: ট্রেন আসার সময় খোলা ছিল ক্রসিংয়ে গেইট 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে সিএনজি চালিত অটো রিকশা রেলপথের ক্রসিং পারাপার হতে গিয়ে ট্রেনের ধাক্কায় দুই ছেলেরসহ বাবা মৃত্যুর ঘটনায় রেলওয়ে গেইটম্যানকে দায়ী করছে প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতদের স্বজনরা। তাদের দাবী, ট্রেন আসার সময় রেলক্রসিংয়ের গেইট বন্ধ করেননি গেইট ম্যান। ফলে রেললাইন পারাপার হতে গিয়ে বাবা ও দুই ছেলে সহ সিএনজিটিকে ধাক্কা দেয় ট্রেন।


রোববার ভোরে উপজেলার তালশহর রেলক্রসিং পারাপারের সময় ট্রেনের ধাক্কায় সিএনজি চালিত অটো রিকশায় থাকা সাদেক মিয়ার দুই ছেলে রুবেল (৩৩) ও পাভেল (২৩) নিহত হয়। এই দূর্ঘটনায় তাদের  সাদেক মিয়া (৫৫) ও সিএনজির চালক গুরুতর আহত হলে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থা তিনি মারা যান।

webnewsdesign.com

নিহতরা সবাই সদর উপজেলার নাটাই উত্তর ইউনিয়নের রাজঘর গ্রামের বাসিন্দা।

নিহত সাদেক মিয়ার চাচা হুমায়ূন মিয়া বলেন,’আমরা এই দূর্ঘটনার বিষয়ে তালশহরের স্থানীয়দের সাথে সাথে কথা বলেছি। তাদের সবার একই কথা, গেইটম্যান রেল গেইট বন্ধ করলে এই দূর্ঘটনা ঘটতো না। গেইটম্যানের গাফেলতিতে এই ঘটনায় বাবা ও দুই ছেলের প্রাণ গেছে’।

আশুগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজাদুর রহমান বলেন, দূর্ঘটনার পর পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। আমি নিজেও সেখানে গিয়েছিলাম পরিদর্শন করতে। ঘটনাটি নিয়ে আশপাশের প্রত্যক্ষদর্শী দোকানদারদের সাথে কথা বলেছি। তারা জানিয়েছেন, রেলক্রসিংয়ের গেইটম্যানের কক্ষে গেইটম্যান ঠিকই ছিল। কিন্তু ট্রেন আসার সময় গেইটম্যান গেইটটি ফেলে বন্ধ করেননি’।

তবে আখাউড়া রেলওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল করিম বলেন,’গেইটম্যানের সাথে আমার কথা হয়েছে। তার দাবি তিনি ক্রসিংয়ে ট্রেন আসার সময় গেইট ফেলেছিলেন। বন্ধ করা থাকলেও সিএনজিটির লোকজন পারাপার হতে গেইট উপরে তুলে অতিক্রম করার চেষ্টা করে। ফলে এই দূর্ঘটনাটি ঘটেছে।


মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com