আপডেট

x

জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেটে জাতীয় শোক দিবস পালিত

সোমবার, ১৬ আগস্ট ২০২১ | ১:১৬ অপরাহ্ণ | 116 বার

জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেটে জাতীয় শোক দিবস পালিত

সৌদি আরবের জেদ্দাস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল ১৫ ই আগষ্ট স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করেছে।


কনস্যুলেট প্রাঙ্গনে দিবসের সকাল ৮টায় জাতীয় সংগীত পরিবেশনের সাথে সাথে কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ নাজমুল হক আনুষ্ঠানিক ভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও অর্ধনমিত করেন।

webnewsdesign.com

এরপর কনসাল জেনারেল কনস্যুলেট প্রাঙ্গণে স্থাপিত জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে কনস্যুলেটের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারিসহ পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এ উপলক্ষে পবিত্র কোরআন অনুষ্ঠান ও মোনাজাত করা হয়। প্রবাসি গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও বিভিন্ন পেশাজীবি জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন ।

দ্বিতীয় পর্বের অনুষ্ঠানে বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে ভার্চুয়াল ভাবে অনুষ্ঠিত হয়। শুরুতেই কোরআন তেলাওয়াত এবং বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। জাতির পিতা বঙ্গমাতাসহ ১৫ আগষ্ট সকল শহীদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। এ উপলক্ষে মহামান্য রাষ্ট্রপ্রতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় প্রররাষ্ট্রমন্ত্রী মাননীয় প্রররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত বাণী পাঠ করে শোনানো হয়।

কনসাল জেনারেল নাজমুল হক তার বক্তব্যে বলেন, ১৯৭৫ সালে ১৫ ই আগষ্টের নির্মম হত্যাযজ্ঞ সহ জাতির পিতার জীবন ও কর্মের উপর আলোকপাত করেন। এসময় তিনি বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের উপর পরিচালিত নির্মম হত্যাকাণ্ডকে বাঙ্গালী জাতির অস্তিতের উপর আঘাত বলে অভিহিত করেন। তিনি বলেন ঘাতকরা বঙ্গবন্ধর নীতি ও আর্দশকে হত্যা করতে চেয়েছিল যা সফল হয়নি। প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে বঙ্গবন্ধুর অবিনাশী চেতনা ও আর্দশ চির প্রবহমান থাকবে। তিনিও আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন ধর্ম -বর্ণ নির্বিশেষে বাংলার সকল মানুষের আপোষহীন এক অবিসংবাদিত নেতা। ব্যক্তি স্বার্থকে জলাঞ্জলি দিয়ে জাতীয় স্বার্থের তরে নিজেকে উৎসর্গ করেছিলেন । বঙ্গবন্ধু ছিলেন বাঙ্গালী জাতির স্বপ্নদ্রষ্টা এবং স্বাধীনতার রুপকার। বাঙ্গালী মুক্তি ও অধিকার আদায়ে পরিচালিত প্রতিটি গণতান্ত্রিক ও স্বাধীকার আন্দোলনে তিনি নেতৃত্ব দেন এবং বহুবার কারাবরণ করেন। তাঁর দূরদর্শী, সাহসী ও ঐন্দ্রজালিক নেতৃত্বে আমরা অর্জন করি স্বাধীনতা ও সার্বভৌম বাংলাদেশ।

কনসাল জেনারেল আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ঈর্ষনীয় সাফল্য অর্জন করেছে যা বিশ্ব রোল মডেল ।


অনুষ্ঠানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জীবন ও কর্মের উপর নির্মিত একটি বিশেষ প্রমান্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।

সৌদি সরকারের করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ আরোপিত বিধিনিষেধ অনুসরণ করে স্বাস্থ্য বিধি মেনে কনস্যুলেটের সকল কর্মকর্তা/কর্মচারি, সোনালী ব্যাংক প্রতিনিধি, হজ্ব অফিসের কর্মকর্তাবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন । জুম প্ল্যাটফর্ম অনুষ্ঠানে প্রবাসী বাংলাদেশি গণমাধ্যম ব্যক্তিবর্গ ও বিভিন্ন পেশাজীবি অংশ গ্রহণ করেন।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com