আপডেট

x

ছয় ঘন্টা বন্ধ থাকায় ফেসবুকের ক্ষতি ৫১হাজার কোটি টাকা!

বুধবার, ০৬ অক্টোবর ২০২১ | ১২:৫৭ পূর্বাহ্ণ | 83 বার

ছয় ঘন্টা বন্ধ থাকায় ফেসবুকের ক্ষতি ৫১হাজার কোটি টাকা!

বিভ্রাটের কবলে পড়ে ছয় ঘণ্টা ফেসবুক বন্ধ থাকায়, পুঁজিবাজারে কোম্পানিটির দরপতনে এর প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গের সম্পদের অর্থমূল্য কমে গেছে ৬০০ কোটি ডলার। বাংলাদেশি টাকায় যের পরিমাণ ৫১ হাজার কোটি টাকা। ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বের শীর্ষ এই সোশ্যাল মিডিয়া কোম্পানির শেয়ারের দরপতনের কারণে বিশ্বের ধনী ব্যক্তির তালিকাতেও এক ধাপ নিচে নেমে গেছেন জাকারবার্গ।


গত সোমবার বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৯টার দিকে বিভ্রাটের কবলে পড়ে ফেসবুক। কেবল ফেসবুক নয়, এ কোম্পানির মালিকানাধীন ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপ, ম্যাসেঞ্জারসহ অন্যান্য সেবাও বন্ধ হয়ে যায়।

webnewsdesign.com

এই বিভ্রাটের জন্য নিজেদের ভুলের কথা স্বীকার করেছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। ফেসবুক নিজেই এক ব্লগে জানিয়েছে, তাদের ভুলে বিভ্রাট ঘটেছিল। তবে এটি কোনো নাশকতা কিনা সে ব্যাপারে কিছু বলা হয়নি। এই বিভ্রান্তির মূল কারণ ছিল ত্রুটিপূর্ণ কনফিগারেশন পরিবর্তন। এদিকে ফেসবুকের বিরুদ্ধে বোমা ফাটিয়েছেন সাবেক কর্মী ফ্রান্সেস হাউগেন।

মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেলে এক সাক্ষাৎকারে ফ্রান্সেস হাউগেন অভিযোগ করেন, অনলাইনে ভুয়া তথ্যের প্রচারণা, মিথ্যাচার, সহিংসতা বন্ধে বিশ্বের সেরা প্রতিষ্ঠান হিসেবে নিজেদের দাবি করে আসছে ফেসবুক। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব গবেষণা বলছে একদমই উল্টো কথা। সমাজব্যবস্থার ওপর প্ল্যাটফরমটির বিরূপ প্রভাবের প্রমাণ উঠে এসেছে একাধিক সূত্র থেকে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, জটিলতা কাটিয়ে ফেসবুকের সেবা চালু করতে লেগে যায় প্রায় ছয় ঘণ্টা। এই সময়ে পুঁজিবাজারে ফেসবুক ইনকরপোরেশনের শেয়ারের দাম ৪ দশমিক ৯ শতাংশ কমে যায়। গত নভেম্বরের পর এক দিনে ফেসবুকের শেয়ারের দরপতনের সবচেয়ে বড় ঘটনা এটি। এই দরপতনের কারণে জাকারবার্গের সম্পদের অর্থমূল্য কমে দাঁড়িয়েছে ১২ হাজার ১৬০ কোটি ডলারে। ফলে ব্লুমবার্গের বিলিয়নেয়ার ইনডেক্সে এক ধাপ নিচে নেমে জাকারবার্গের অবস্থান এখন বিল গেটসের পর পাঁচ নম্বরে। কয়েক সপ্তাহের ব্যবধানে প্রায় ১৪ হাজার কোটি ডলার থেকে কমে জাকারবার্গের সম্পদের পরিমাণ বর্তমান অবস্থানে নেমেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েক জন ফেসবুক কর্মী বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছে, শুরুতেই তারা ধারণা করেছিলেন, অভ্যন্তরীণ ভুলের কারণে এ বিভ্রাট ঘটেছে। কর্মীরা বলেন, ইন্টারনাল কমিউনিকেশন টুল এবং অন্যান্য বিষয়ের ব্যর্থতার কারণে ফেসবুকের ত্রুটি আরো বড় হয়ে উঠে। বিভ্রাটের শুরুতে নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা বলেছিলেন, কোনো কর্মীর অনিচ্ছাকৃত ভুল বা অভ্যন্তরীণ কোনো নাশকতা, যে কোনো কিছুই বিভ্রাটের কারণ হতে পারে। এবার ফেসবুক নিজেই এক ব্লগে জানাল, তাদের ভুলে বিভ্রাট ঘটেছিল। ওয়েব মনিটরিং গ্রুপ ডাউন ডিটেক্টর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ফেসবুকের এবারের বিভ্রাট এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড়। ফেসবুকের বিভ্রাটগুলো ব্যাপক এবং বিশ্ব জুড়ে বিস্তৃত ছিল। বিশ্ব জুড়ে সাড়ে ৩০০ কোটি ব্যবহারকারী ফেসবুকে প্রবেশ করতে পারেননি।


সূত্র- ইত্তেফাক

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com