আপডেট

x

কসবায় পাওনা টাকাকে কেন্দ্র করে হামলা ও লুটপাট, আহত-৬

রবিবার, ২৪ মে ২০২০ | ৯:৩৪ অপরাহ্ণ | 95 বার

কসবায় পাওনা টাকাকে কেন্দ্র করে হামলা ও লুটপাট, আহত-৬

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় পাওনা টাকাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের বাড়িতে হামলা ও লুটপাটের চালানোর ঘটনা ঘটেছে। রোববার (২৪ মে) উপজেলার কাইমপুর ইউনিয়নের নোয়াগাও গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এতে আহত হয়েছে ৬ জন। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ১০ জনকে আটক করেছে পুলিশ।


এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার কাইমপুর ইউনিয়নের জাজিসার গ্রামের মো. শিপন মিয়ার ছেলে ইমন মিয়া ও নোয়াগাও গ্রামের মো. লাকসু মিয়ার ছেলে আল আমিন দুই বন্ধু। তাদের দুজনের মধ্যে পাওনা টাকা নিয়ে দুই গ্রামে দ্বন্দ্বের সুত্রপাত। এই পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে গত শনিবার দুপুরে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এই সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে জাজিসার গ্রামের ইমন মিয়া দলবল নিয়ে গত শনিবার সন্ধ্যায় আক্রমন চালায় নোয়াগাও গ্রামের লোকজনের উপর। পরে স্থানীয়দের হস্তক্ষেপে বন্ধ হয় সংঘর্ষ। এতেও ক্ষান্ত হয়নি ইমন মিয়া ও তার লোকজন রাত ১২টায় পুনরায় আক্রমনের চেষ্টা করে নোয়াগাঁও গ্রামের লোকজনদের উপর। ব্যর্থ হয়ে নোয়াগাঁও জামে মসজিদের ইতিকাফে থাকা এক যুবককে মসজিদ থেকে বের করে আক্রমনের চেষ্টা করে জাজিসার গ্রামের লোকজন। কিন্তু তাতেও ব্যর্থ হয় জাজিসার গ্রামের লোকজন ।

পরদিন রোববার ভোরবেলা নোয়াগাঁও গ্রামের সাহেব সর্দারগন জাজিসার গ্রামের সাহেব সর্দারগনের সাথে দেখা করেন বিষয়টি সমাধানের লক্ষ্যে। জাজিসার গ্রামের লোকজন বিষয়টি সমাধানের আশ্বাস দেন নোয়াগাও গ্রামের সাহেব সর্দারদের। ওই আশ্বাসের কিছুক্ষন পরই জাজিসার গ্রামের লোকরাজন সংঘবদ্ধ হয়ে আতর্কিত হামলা, ভাংচুর ও লুটতরাজ চালায় নোয়াগাও গ্রামে। এরা প্রায় ৩০টি বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও লুটতরাজ চালায়। নোয়াগাও গ্রামের ক্ষতিগ্রস্থদের দাবী তাদের প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। যাকে পেয়েছে তাকেই বেদড়ক পিটিয়েছে আক্রমন কারীরা। আক্রমনকারীরা বেদড়ক পিটিয়েছে ওই গ্রামের এক পুলিশ সদস্যের এক অন্তসত্বা বোনকে। তাদের বাড়ি থেকে ১লাখ টাকা ও ৫ ভরি স্বর্ণালংকার লুট করে হামলাকারীরা নিয়ে যায় বলে জানায় ওই পরিবারের লোকজন । খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে পুলিশ। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন কসবা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো.মিজানুর রহমান ভূইয়া। পুলিশ এ ঘটনার সাথে জড়িত ১০ জনকে আটক করেছেন।

এ বিষয়ে কসবা থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ লোকমান হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পাওনা টাকা নিয়ে নোয়াগাও এবং জাজিসার গ্রামের লোকজনের মাঝে সংঘর্ষ হয়েছে। নোয়াগাও গ্রামে হামলা, ভাংচুর ও লুটতরাজ হয়েছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত ১০ জনকে আটক করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com