করোনাভাইরাস-‘প্রতিরোধ-চিকিৎসা’

বুধবার, ২২ এপ্রিল ২০২০ | ১২:০৮ পূর্বাহ্ণ | 1321 বার

করোনাভাইরাস-‘প্রতিরোধ-চিকিৎসা’

সম্প্রতি বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসে সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। চীন, ইতালি, যুক্তরাস্ট্র, যুক্তরাজ্য সহ বিশ্বের অনেক উন্নত রাষ্ট্র এই ভাইরাস মোকাবেলায় হিমসিম খাচ্ছে। বাংলাদেশ একটি জনবহুল রাষ্ট্র। সম্প্রতি এখানেও করোনা রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। ধারণা করা হয়, প্রকৃত রোগীর সংখ্যা, শনাক্ত রোগীর চেয়ে অনেক বেশি। করোনা শতকরা ৮০% রোগীর ক্ষেত্রে লক্ষণবিহীন বা মৃদু লক্ষণ থাকে। ১৫% রোগীর শ্বাসকষ্ট হতে পারে এবং অক্সিজেন লাগতে পারে। ৫% রোগীর নিবিড় পরিচর্যা লাগতে পারে। বাংলাদেশে আই সি ইউ সেবার সুযোগ সুবিধা খুবই সীমিত। তাই
প্রতিরোধ প্রতিকারের চেয়ে সহজ ও উত্তম।

করোনা প্রতিরোধ করতে করণীয়ঃ


১. বাসায় থাকুন, অযথা বাইরে যাবেন না
২. পরিমিত বিশ্রাম নিন (৮-১০ ঘণ্টা)
৩. গরম পানীয় পান করা (প্রতি ১ঘণ্টা পরপর)
৪. দুশ্চিন্তা পরিহার করা
৫. নিয়মিত ব্যায়াম (প্রতিদিন বড়দের ৩০মিনিট)
৬. নিয়মিত প্রার্থনা
৭. পারস্পরিক ২-৩ মিটার দূরত্ব বজায় রাখুন
৮. মাস্ক ও গ্লাভস ব্যবহার করুন
৯. ঘন ঘন কাপড় ধোয়ার সাবান দিয়ে হাত ধোয়া
১০. অপ্রয়োজনে কোথাও হাত না দেয়া
১১. শাক সবজি, ফল, প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া। মিষ্টি খাবার কম খান।
১২. শরীরে রোদ লাগান (প্রতিদিন ১৫-২০মিনিট)
১৩. হাঁচি, কাশি হলে টিসু পেপার, বা কনুই দিয়ে ঢেকে দিন।
১৪. বাসায় বাইরের লোকের আগমন নিরুৎসাহিত করুন।
১৫. বাজার, ভিড় এ পারতে যাবেন না।
১৬. শ্বাসের ব্যায়াম করুন।
১৭. ধূমপান, জর্দা ইত্যাদি যেকোন নেশা পরিহার করুন।

কিছু উপাদান/ ভিটামিন খেতে পারেন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে।

১. Cap Vital D 20000iu every ১-২ দিন পরপর খাবার আগে সকালে

২. Tab Bicozin 0+0+1

৩. ভিটামিন এ, সি, ই সমৃদ্ধ খাবার
Tab Rex ০+০+১

যদি জ্বর, ঠান্ডা, সর্দি, গলা ব্যাথা, পাতলা পায়খানা ইত্যাদি উপসর্গগুলো দেখা দেয়, নিজেকে আলাদা রাখুন। পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সংস্পর্শে যাবেন না। অবশ্যই মাস্ক পরে থাকবেন।

গামছা, প্লেট, গ্লাস, টয়লেট আলাদা রাখবেন। পরীক্ষা করার জন্যে ৩৩৩ বা ১৬২৬৩ নম্বরে ফোন করতে পারেন।
নিম্নলিখিত ঔষধগুলো সেবন করতে পারেন।

Tab Azithromycin (Azyth) 500mg 1+0+1 ৫ দিন
Tab Monteleukast(Monas) 10mg
0+0+1 for 7 days ১০ দিন
Tab Fexofenadin (Fexo) 120mg 0+0+1 ১০ দিন
Tab Ace XR 665mg
1+1+1 জ্বর বা ব্যাথা হলে

গরম পানি লবণ দিয়ে গড়গড়া করুন দিনে তিন বার খাবার পর।

যদি শ্বাসকষ্ট হয়, উপুড় হয়ে শোন, দিনের কিছু সময়।
Inhaler Salbutamol (Saltolin) ২ চাপ ২ বার (প্রয়োজনে শ্বাস কষ্ট বা কাশি হলে ৩০ মিনিট পরপর ব্যবহার করা যাবে)।
বাসায় মেশিন থাকলে নিবুলাইজ করা যাবে, তবে সেসময় সামনে কেউ যেন না থাকে।

এরপরও শ্বাসকষ্ট হলে হাসপাতালে যোগযোগ করবেন।

পরিশেষে এই মহামারীর সময়ে সকলে সকলকে সহযোগিতা করি। বিশেষ করে যারা জরুরি সেবা দিচ্ছেন, তাদের ।
আল্লাহ আমাদের সকলকে সুস্থ রাখুন এবং এই মহা বিপর্যয় থেকে মানবজাতিকে রক্ষা করুন এই কামনা।

লেখক-
ডাঃ সৈয়দ আরিফুল ইসলাম
এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য), এমডি (এনেস্থেসিয়া- বিএসএমএমইউ), এফআইপিএম (ইন্ডিয়া),
ইএমও,২৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতাল।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com