আপডেট

x

করোনাকালেও ক্ষুদ্রঋণ গ্রহীতাদের চাপে রেখেছেন পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের ম্যানেজার

শুক্রবার, ০৩ জুলাই ২০২০ | ৪:০১ অপরাহ্ণ | 406 বার

করোনাকালেও ক্ষুদ্রঋণ গ্রহীতাদের চাপে রেখেছেন পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের ম্যানেজার

বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাসের পাদুর্ভাবের মধ্যেও দেশে লকডাউন কিছুটা শিথিল করা হলেও জনজীবন এখনো অনেকটা বিপর্যস্ত। সাধারণ মানুষ এখনো নূন আনতে পান্তা ফুরায়। এই পরিস্থিতি বিবেচনায় সরকার সাধারণ ক্ষুদ্র ঋণ গ্রহীতাদের সমস্যা লাঘবে কিছু সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।


সর্বশেষ গত ২৩জুন মাইক্রো ক্রেডিট রেগুলেটরি অথরিটির নির্বাহী পরিচালক (যুগ্ন-সচিব) লক্ষণ চন্দ্র দেব সাক্ষরিত একটি সার্কুলার জারি করে। এতে ৩(ক)তে স্পষ্ট করে উল্লেখ্য করা আছে, করোনা ভাইরাসে কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে যদি কোন ঋণগ্রহীতাদের আর্থিক অক্ষমতার কারণে ক্ষুদ্র ঋণের কিস্তি অপরিশোধিত থাকলে তাদের আর্থিক অবস্থা বিবেচনা নিয়ে আগামী ৩০সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রাপ্য কোন কিস্তি/ঋণকে বকেয়া/খেলাপী দেখানো যাবে না। (খ) এই সংকটময় সময়ে ঋণ গ্রহীতাদের কিস্তি পরিশোধে বাধ্য করা যাবে না।

তবে এই সার্কুলার অমান্য করে ঋণ গ্রহীতাদের বাড়ি বাড়ি লিখিত নোটিশ পাঠাচ্ছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরের একটি বাড়ি একটি খামার ও পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক রণন প্রতীম ভাওয়াল।

বিজয়নগর উপজেলা একটি বাড়ি একটি খামার ও পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক থেকে উপজেলার ১০ ইউনিয়নের ঋণ গ্রহিতাদেরকে ঋণ পরিশোধের জন্য খেলাপী উল্লেখ করে হলুদ কাগজে চূড়ান্ত নোটিশ দেয়া হয়েছে। গত ২৪জুন এই সংক্রান্ত চূড়ান্ত নোটিশ পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক বিজয়নগর শাখার ব্যবস্থাপক রণন প্রতিম ভাওয়াল স্বাক্ষরিত নোটিশ গ্রাহকদের বাড়িতে বাড়িতে পৌছানো হচ্ছে।

নোটিশ পেয়ে উপজেলার পত্তন ইউনিয়নের নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক একাধিক গ্রাহক জানিয়েছেন, করোনার কারণে কাজকর্ম বন্ধ হয়ে বেকার সময় পার করছি। বউ বাচ্চা নিয়ে খুবই কষ্টে দিন কাটাচ্ছি। রোজি রোজগার নাই তেমন। এরই মধ্যে এমন নোটিশ পেয়ে আমি চরম হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছি। এখন কি করবো। কিছু বুঝে উঠতে পারছিনা।

নোটিশে বলা হয়েছে, গ্রাহকের ঋণ খেলাপী হয়েছে মর্মে নোটিশ প্রাপ্তির পাঁচ কর্ম দিবসের মধ্যে ঋণ পরিশোধ করার জন্য বলা হয়েছে। এছাড়াও নিদিষ্ট সময়ের মধ্যে ঋণ পরিশোধ না করলে গ্রাহকের বিরুদ্ধে আইননানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে।


এ বিষয়ে শাখা ব্যবস্থাপক রণন প্রতীম ভাওয়ালের নিকট জানতে চাইলে তিনি মুঠোফোনে এই প্রতিবেদককে বলেন, অফিস আওয়ার ছাড়া কথা বলতে পারব না। তাই কিছু জানতে চাইলে অফিসে আওয়ারে এসে জেনে যান।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com