আপডেট

x

আখাউড়ায় পরীক্ষা কেন্দ্রে পুলিশকে লাঞ্চিত করলো মেয়রের ভাতিজা

সোমবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৭:৩৪ অপরাহ্ণ | 117 বার

আখাউড়ায় পরীক্ষা কেন্দ্রে পুলিশকে লাঞ্চিত করলো মেয়রের ভাতিজা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে বহিরাগতদের বের হতে বলাকে কেন্দ্র করে মো. আলমঙ্গীর হোসেন নামে এক পুলিশ অফিসারকে লাঞ্ছিত করা হয়েছে।

অভিযোগ উঠেছে, আখাউড়া পৌরসভার মেয়র ও যুবলীগের আহবায়ক তাকজিল খলিফার ভাতিজা হাসান খলিফা (৩০) তার সাঙ্গপাঙ্গ নিয়ে পুলিশের ওপর চড়াও হন এবং লাঞ্ছিত করেন।
এ ঘটনায় পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। অবশ্য পুলিশ বলছে, এ বিষয়ে থানায় জিডি করা হয়েছে। পুলিশের ওপর হামলা চেষ্টাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

সোমবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে আখাউড়া রেলওয়ে উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় পরীক্ষার্থীরা ভয়ে দ্বিগবিদ্বিগ ছুটাছুটি শুরু করে।

আখাউড়া থানা ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, পূর্ব নির্ধারিত সময় এসএসসি পরীক্ষা শুরু হওয়ার ঠিক আগ মূহুর্তে আখাউড়া রেলওয়ে উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রের দায়িত্বরত পুলিশ অফিসার উপ-সহকারী পুলিশ পরিদর্শক (এএসআই) মো. আলমঙ্গীর হোসেন বহিরাগতদের বের হয়ে যেতে অনুরোধ জানান।
সবাই চলে গেলেও আখাউড়া পৌরসভার মেয়র তাকজিল খলিফার ভাতিজা হাসান খলিফা বের হচ্ছেন না। এসময় তাকে পরীক্ষার কেন্দ্র থেকে বের হয়ে যাওয়ার জন্য তাকে ফের অনুরোধ করেন পুলিশ অফিসার আলমঙ্গীর হোসেন। এতে সে ক্ষিপ্ত হয়ে চলে যায়। কিছুক্ষণের মধ্যে হাসান তার সাঙ্গপাঙ্গু নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করে ওই পুলিশ অফিসারকে হামলার চেষ্টা করে লাঞ্ছিত করে।

এ সময় পরীক্ষার কেন্দ্রে দায়িত্বরত পুলিশ কনস্টেবল সৈকত, সাখাওয়াত, তুরন এগিয়ে এসে বাঁশি ফুক দিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়ার চেষ্টা করেন। এসময় যুবলীগ নেতা শিপন হায়দারসহ অন্যরা উত্তেজিত হাসানের রোষানলের কবল থেকে পুলিশ অফিসার আলমঙ্গীর হোসেনকে টেনে মাঠ থেকে পরীক্ষার কেন্দ্রের ভেতরে নিয়ে যায়।

এর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাহমিনা আক্তার রেইনা বলেন, আমরা এ ঘটনাটি হালকাভাবে নিচ্ছি না। এ ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিচ্ছি।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (আখাউড়া-কসবা সার্কেল) মো. মিজানুর রহমান ভূঁইয়া জানান, এ বিষয়ে থানায় জিডি করা হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com