আখাউড়ায় স্বামীর বেড়াতে নিয়ে না যাওয়ায় অভিমানে গৃহবধুর আত্মহত্যা

বৃহস্পতিবার, ২৭ এপ্রিল ২০২৩ | ১০:১৩ অপরাহ্ণ |

আখাউড়ায় স্বামীর বেড়াতে নিয়ে না যাওয়ায় অভিমানে গৃহবধুর আত্মহত্যা
ফাইল ছবি
Spread the love

ঈদের ছুটিতে উপলক্ষে বেড়াতে নিয়ে না যাওয়ায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় স্বামীর সাথে অভিমান করে সাথী ইসলাম (২৬) নামে এক গৃহবধু আত্মহত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার (২৭ এপ্রিল) সকালে উপজেলার মনিয়ন্দ ইউনিয়নের শিবনগর গ্রাম থেকে মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত সাথী একই গ্রামের অটোরিকশা চালক মোস্তাফা কামালের স্ত্রী।

আখাউড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. শফিকুল ইসলাম জানান, ঈদ উপলক্ষে সাথী ইসলাম তার স্বামীকে ঘুরতে নিয়ে যেতে আবদার করে। স্বামী কামাল ঈদ মৌসুমে গাড়ি চালিয়ে ভালো রোজগার হলে ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার আশ্বাস দেন। এরই মধ্যে একদিন ঘুরতে যান তারা। বুধবার আবারও স্বামীর কাছে ঘুরতে যাওয়ার বায়না ধরে সাথী। কিন্তু কামাল ঈদ মৌসুম শেষ হলে আবার ঘুরতে নিয়ে যাবেন বলে স্ত্রী জানায়। একথা জামিয়ে তিনি বিকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। রাত ১২টার দিকে মোস্তাফা কামাল বাড়িতে ফিরে ঘরের দরজা বন্ধ পেয়ে ডাকাডাকি করলে সাথী রাগ করে দরজা না খুলে তাকে অন্য ঘরে ঘুমাতে বলেন। কামাল তখন তার ভাতিজার সাথে অন্য ঘরে ঘুমায়। সকাল ৬ টার দিকে স্ত্রীকে ডাকাডাকি করে কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে জানালার ছিদ্র দিয়ে তার স্ত্রীকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান।

webnewsdesign.com

এ ব্যাপারে মনিয়ন্দ ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মো. রফিকুল ইসলাম সবুজ বলেন, গত ৩ বছর আগে মোস্তাফা কামাল ও নারায়নগঞ্জ জেলার সাথী ইসলামের প্রেমের সম্পর্ক থেকে বিয়ে হয়। ঈদুল ফিতরের পর সাথী তার স্বামীকে কুটি কাঠেরপুল এলাকায় ঘুরতে নিয়ে যেতে বলে। কিন্তু ঈদের মৌসুমে যাত্রী বেশি থাকায় কুটি না নিয়ে আখাউড়া চেকপোষ্ট এলাকায় ঘুরতে নিয়ে যায়। বুধবার বিকালেও সে আবার ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার জন্য বায়না ধরে। এ নিয়ে স্বামীর প্রতি অভিমান করে সে আত্মহত্যা করেছে।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com