আখাউড়ায় রেলের যন্ত্রাংশসহ আটক কর্মচারিদের ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ, আরএনবির দাবি ‘আবর্জনা’

মঙ্গলবার, ০৭ মে ২০২৪ | ৯:৪৪ অপরাহ্ণ |

আখাউড়ায় রেলের যন্ত্রাংশসহ আটক কর্মচারিদের ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ, আরএনবির দাবি ‘আবর্জনা’
Spread the love

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় রেলওয়ের যন্ত্রাংশ চুরি যেন থামছেই না। এবার রেলওয়ের যন্ত্রাংশসহ আটক হয় তিন কর্মচারি। রফাদফায় তাদেরকে ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে নিরাপত্তাবাহিনীর (আরএনবি) সদস্যরা বলছেন এগুলো রেলওয়ের ‘আবর্জনা। এ নিয়ে রেলঅঙ্গনে তোলপাড় শুরু হয়েছে।

স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, সোমবার দুপুরে একটি ভ্যানগাড়িতে করে রেলওয়ের থানার সামনে দিয়ে কিছু ভাঙাচুরা যন্ত্রাংশ নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। এ সময় আরএনবি সদস্যরা রেলওয়ের লোকোশেড বিভাগে কর্মরত জসিম উদ্দিন, মানিক দাস ও জীবন দাস নামে তিনজনকে আটক করে মালামালগুলো কোথায় যাবে জানতে চান। এ নিয়ে আরএনবি’র সঙ্গে ওই তিন কর্মচারির কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ওই তিনজনকেসহ মালামাল আরএনবি চৌকিতে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে আরএনবি চীফকে ম্যানেজ করে ছাড়া পায় লোকোসেডের কর্মচারীরা।

webnewsdesign.com

স্থানীয় সূত্রটি আরো জানায়, রেলওয়ের একটি চক্র এর আগেও যন্ত্রাংশ চুরি করে বিক্রি করতে গিয়ে ধরা পড়ে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারা ছাড় পেয়ে যায়।

এ বিষয়ে কথা হলে ওই সময়ে আটক লোকোশেডের কর্মচারি মানিক দাস জানান, এসব মালামাল জয়দেবপুরে দুর্ঘটনা কবলিত ট্রেনের। এগুলো আখাউড়ায় নিয়ে এসেছিলাম। ডাম্পিং স্টেশনে রাখার জন্য  নিয়ে যাওয়ার সময় আরএনবি সদস্যরা আটক করে। পরে তারা মালামালগুলি নিয়ে যায়।

আখাউড়া আরএনবি’র পরিদর্শক মো. আবু সুফিয়ান ভূইয়া রফাদফা করে ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘মালামালগুলো উদ্ধারের পর জানতে পারি এগুলো মূলত ‘আবর্জনা’। সবমিলিয়ে ৫০-৬০ কেজি হবে। রেলওয়ের এসব মালামাল আমাদের কাছে রেখে দেওয়া হয়েছে।

আশরাফুল মামুন

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com