দুই মাস যাবত কারাগারে কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা শেখ মোহাম্মদ শামীম

মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯ | ৯:২৪ অপরাহ্ণ | 625 বার

দুই মাস যাবত কারাগারে কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা শেখ মোহাম্মদ শামীম

গত দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে কারাগারে আছেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)’র কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বিএনপির উপদেষ্টা ও ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি সাবেক সহ সভাপতি শেখ মোহাম্মদ শামীম। গত ১৬ জানুয়ারি রাজধানীর পল্টন এলাকা থেকে তাকে রাত প্রায় সাড়ে ৮টার দিকে গ্রেফতার করে থানা পুলিশ। রাজনৈতিক মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারের পর আদালতে হাজির করা হলে শেখ মোহাম্মদ শামীমকে ঢাকার কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরণ করেন।

তার গ্রেফতারে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বিএনপি। পাশাপাশি তাকে নিঃশর্ত মুক্তির দাবী জানিয়েছেন বিএনপির নেতারা।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বিএনপির সভাপতি হাফিজুর রহমান মোল্লা (কচি) বলেন, সকল নেতাকর্মীর মুক্তির বিষয়ে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। আদালতের প্রতি আমরা শ্রদ্ধাশীল। আশা করছি শেখ শামীম সহ সকল নেতাকর্মী মুক্ত হয়ে আসবেন।

জেলা বিএনপি সহ-সভাপতি জিল্লুর রহমান বলেন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়া সহ সকল নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে আন্দোলনের পাশাপাশি আমরা আইনগত ভাবে লড়ে যাব। অবিলম্বে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া, কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা শেখ মোহাম্মদ শামীম সহ কারাগারে থাকা বিএনপির নেতাকর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করছি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইল উপজেলার পানিশ্বর গ্রামের সন্তান শেখ মোহাম্মদ শামীম। শেখ মোহাম্মদ শামীম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা কালীন জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল বিশ্ববিদ্যালয় শাখার যুগ্ন সম্পাদক ছিলেন। পরে পর্যায়ক্রমে তিনি জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য থেকে শুরু করে সহ সভাপতি ছিলেন। বর্তমানে তিনি বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বিএনপির উপদেষ্ঠা।
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনে বিএনপি থেকে যে কয়েকজন প্রার্থীকে প্রাথমিক দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়েছিল শেখ মোহাম্মদ শামীম ছিলেন এদের মধ্যে অন্যতম।

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com