এবার এমবাপের ছায়ায় ঢাকা পড়ার শঙ্কায় নেইমার!

বুধবার, ১৮ জুলাই ২০১৮ | ১০:৪৩ অপরাহ্ণ | 25 বার

এবার এমবাপের ছায়ায় ঢাকা পড়ার শঙ্কায় নেইমার!

লিওনেল মেসির ছায়া থেকে বেরোতেই বার্সেলোনা ছেড়ে পিএসজিতে যোগ দেন নেইমার। ব্রাজিলিয়ান তারকার চাওয়া ছিল নিজ ক্লাবে নেতা হবেন। তা তার সেই চাওয়া পূরণও করেছে পিএসজি। গত মৌসুমে বার্সেলোনা থেকে রেকর্ড ২২২ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে কিনে আনার পর নেইমারকে দলের ‘নেতা’র ভূমিকাই দিয়েছে পিএসজি। কিন্তু বছর ঘুরতেই ব্রাজিলিয়ান তারকার সেই ‘নেতাগিরি’ হুমকির মুখে। স্বয়ং নেইমারই নাকি সতীর্থ কিলিয়ান এমবাপের ছায়ায় ঢাকা পড়ার শঙ্কায় ভুগতে শুরু করেছেন!

নেইমারের অন্দরমহলের শঙ্কার সেই ছবিটা আবিষ্কার করার চেষ্টা করেছে স্পেনের জনপ্রিয় ক্রীড়া দৈনিক এএফস। পত্রিকাটির অন্যতম ফুটবল প্রতিবেদক মার্কো রুইস নেইমারের কাছের মানুষদের সঙ্গে কথা বলেছেন। তারাই নাকি আভাস-ইঙ্গিতে বুঝিয়ে দিয়েছেন, সতীর্থ এমবাপের ছায়ায় ঢাকা পড়ার আশঙ্কা করছেন নেইমার! ঠিক বার্সেলোনায় যেমন মেসির ছায়ায় ঢাকা পড়ে ছিলেন। খেলতে হয়েছে ‘নেতা’ মেসির পার্শ্বচরিত্রের ভূমিকায়।

মেসির ছায়া থেকে বেরিয়ে পিএসজিতে ‘নেতা’ হয়েই আসেন নেইমার। কিন্তু ফরাসি ক্লাবটিতে ব্রাজিলিয়ান তারকা পুরো মৌসুমটা খেলতে পারেননি। গত ফেব্রুয়ারিতে পায়ের চোট তাকে ছিটকে ফেলে মাঠের বাইরে। মৌসুমের শেষ তিনটি মাস তাকে মাঠের বাইরে বসেই কাটাতে হয়েছে। তবে চোট পাওয়ার আগ পর্যন্ত পিএসজিতে ‘তারকা’র ভূমিকাতেই খেলেছেন নেইমার। এডিনসন কাভানি ও এমবাপে খেলেছেন তার পার্শ্বচরিত্রের ভূমিকায়।
কিন্তু আসন্ন মৌসুমেও পিএসজিতে নেইমার নিজের ‘তারকা’ ভূমিকাটা পাবেন কিনা, তা নিয়ে দেখা দিয়েছে সংশয়। গোলমালটা আসলে পাকিয়েছে ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপ। এমবাপে নিজের প্রতিভার ঝলক দেখিয়েছেন ক্লাব ফুটবলেই। তবে এবারের বিশ্বকাপে ফ্রান্সের বিস্ময়বালক পেয়ে গেছেন বিশ্বতারকার খেতাব। অবিশ্বাস্য গতি আর দৃষ্টিনন্দন পারফরম্যান্সে জয় করেছেন বিশ্ববাসীর মন।

বিশ্বকাপ শুরুর আগে মেসি-রোনালদোর পাশাপাশি নেইমারের উপরই ফুটবলপ্রেমীদের প্রত্যাশার পারদটা ছিল বেশি। কিন্তু রাশিয়া বিশ্বকাপে সময়ের সেরা তিন ফুটবলারই হতাশ করেছেন দর্শকদের। মেসি-রোনালদোকে তো বিদায় নিতে হয়েছে দ্বিতীয় রাউন্ড থেকেই। নেইমারকেও বাড়ি ফিরে যেতে হয়েছে কোয়ার্টার ফাইনালের মঞ্চ থেকে। এদের ঠিক উল্টো পিঠে ছিলেন এমবাপে। দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের মাধ্যমে দেশ ফ্রান্সকে করেছেন বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন। পাশাপাশি ব্যক্তিগতভাবে জিতেছেন টুর্নামেন্টের সেরা তরুণ খেলোয়াড়ের পুরস্কার।

১৯ বছর বয়সী এমবাপে টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কারের দৌড়েও ছিলেন। তবে শেষ পর্যন্ত সোনার বলটা জিতে নেন রানার্সআপ ক্রোয়েশিয়ার অধিনায়ক ‍লুকা মড্রিচ। এ নিয়ে এমবাপের অবশ্য কোনো আক্ষেপ নেই। কারণ, তার চেয়েও বড় পুরস্কার পেয়েছেন ফরাসি তরুণ। তার মাথায় এখন বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের মুকুট।

আম-দর্শকদের পাশাপাশি বিশ্বের সব সাবেক খেলোয়াড়েরাই এমবাপের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। বিশ্বকাপের পারফরম্যান্স দেখে এমবাপেকেই ঘোষণা তারা ঘোষণা করেছেন মেসি-রোনালদো যুগের পরের মহাতারকা হিসেবে!
এমবাপের এই অবিশ্বাস্য পারফরম্যান্সই তুলে দিয়েছে শঙ্কাটা। বিশ্বকাপে যে জাদু দেখিয়েছেন, তাতে পিএসজির টিম ম্যানেজমেন্ট নিশ্চয় তাকে আলাদাভাবেই মূল্যায়ন করতে চাইবে আসন্ন মৌসুমে। দিতে চাইবে ‘তারকা’র ভূমিকা। নিজ যোগ্যতায় এমবাপের তা প্রাপ্যও। আর এমবাপেকে তারকা ভূমিকা দেওয়া মানেই তো হবে নেইমারের নেতাগিরিতে ভাটা পড়া! পুরোপুরি না হোক, নেইমার যে গত মৌসুমের মতো একচ্ছত্রভাবে ‘তারকা’ মর্যাদা পাবেন না, সেটা অনুমান করাই যায়।

শঙ্কার কারণ আছে আরও একটি। বিশ্বকাপের পারফরম্যান্সটাকে যদি এমবাপে পিএসজির জার্সিতেও টেনে নিতে পারেন, তাহলে পার্শ্বচরিত্র নয়, একেবারে কেন্দ্রিয় চরিত্রের দাবিদারই হয়ে যাবেন তিনি! নেইমারকে নাকি সেই আশঙ্কাই পেয়ে বসেছে!

তাহলে? নেইমারকে তবে কি পিএসজি ছেড়ে রিয়াল মাদ্রিদেই যোগ দেবেন? গত ৯ বছর ধরে রিয়ালে যিনি ‘নেতা’ ছিলেন, সেই ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো রিয়াল ছেড়ে যোগ দিয়েছেন জুভেন্টাসে। ফলে রিয়ালে ‘নেতা বা তারকা’র পদ;টা এখন খালি! নেইমারকে গেলে অনায়াসেই রিয়ালে ‘নেতা’ হতে পারবেন। তিনি যেতেও চান। কিন্তু নেইমার নাকি এটা ভালো করেই বুঝে গেছেন, অন্তত এবারের দলবদলে তার সেই চাওয়া পূরণ হবে না। পিএসজি এবার কিছুতেই তাকে বিক্রি করবে না।

মানে এমবাপের ছায়ায় ঢাকা পড়ার শঙ্কা নিয়েই পিএসজিতে আসন্ন মৌসুমটি কাটাতে হবে নেইমারকে। হায়রে কপাল! যে ছায়া থেকে বাঁচার জন্য পালিয়ে এসেছেন, সেই ছায়ায়ই আবার উঁকি দিচ্ছে নেইমারের মাথার উপর। পার্থক্য শুধু এই, মেসির ছায়ার পরিবর্তে এমবাপে নামের বিস্ময়বালকের ছায়া!

মন্তব্য করুন

Development by: webnewsdesign.com